জাতীয়

মুম্বই পুলিশের হাতে গ্রেফতার অর্ণব গোস্বামী, আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ, ক্ষুব্ধ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী (ভিডিও)

ছবি: সংগৃহীত

রিপাবলিক টিভির এডিটর অর্ণব গোস্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে খবর। সংবাদসংস্থা পিটিআই সূত্রে খবর, ৫৩ বছর বয়সী এক ইনটেরিয়র ডিজাইনারকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে অর্ণবের বিরুদ্ধে। অন্যদিকে সংবাদসংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, অর্ণব গোস্বামীকে আটক করা হয়েছে আজ সকালে। তাঁকে পুলিশ ভ্যানে করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

সংবাদসংস্থা পিটিআই সূত্রে খবর, বুধবার সকালে তাঁর বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে অর্ণব গোস্বামীকে। এএনআই-এর তরফে একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, আলিবাগ পুলিশের একটি দল অর্ণবকে পুলিশ ভ্যানে তুলছেন। রীতিমতো ধাক্কা দিয়ে তাঁকে ভ্যানে তোলা হয়। সাংবাদিক জানিয়েছেন, বাড়িতে গিয়ে তাঁকে হেনস্থা করেছে পুলিশ।

সূত্রের খবর, অর্ণবের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে এক ইনটেরিয়র ডিজাইনারকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার। ২০১৮ সালে এক ডিজাইনার ও তাঁর মা আত্মহত্যা করেন। পুলিশ আধিকারিকরা জানিয়েছেন, অর্ণব গোস্বামীর রিপাবলিক টিভির কাছে টাকা পেতেন ওই ডিজাইনার।

কিন্তু সেই টাকা দেওয়া হয়নি। তার ফলেই তাঁরা আত্মহত্যা করেন বলে অভিযোগ। এই বিষয়ে অর্ণবের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন অন্বয় নায়েক নামের ওই ডিজাইনারের মেয়ে আদন্যা নায়েক।

আরও পড়ুন: বঙ্গোপসাগরে চার দেশের শুরু নৌ-মহড়া

চলতি বছর মে মাসে মহারাষ্ট্রের গৃহমন্ত্রী অনিল দেশমুখ নির্দেশ দেন, নতুন করে সেই অভিযোগের তদন্ত শুরু করতে। তিনি বলেন, আদন্যার অভিযোগের ভিত্তিতে ভাল করে তদন্ত করেনি আলিবাগ পুলিশ।

খুব তাড়াতাড়ি তদন্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়। চলতি বছর ফের একবার অভিযোগ দায়ের করেন আদন্যা। তারপরেই নতুন করে তদন্তের নির্দেশ দেন দেশমুখ। তিনি বলেন, কেউ দোষ করলে তাঁকে ছাড়া হবে না। তারপরেই গ্রেফতার করা হয়েছে অর্ণবকে।

ছবি: সংগৃহীত

এদিকে এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভরেকর। তিনি এই ঘটনার নিন্দে করেছেন। তাঁর অভিযোগ, ‘আমরা মহারাষ্ট্রে সংবাদপত্রের স্বাধীনতা খর্ব করার ঘটনার নিন্দে করছি।

এভাবে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে ব্যবহার করা উচিত নয়। এই ঘটনা আমাদের জরুরি অবস্থার কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে যখন সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে এই ধরনের ব্যবহার করা হত।’

কিছুদিন আগেই অবশ্য অর্ণব গোস্বামী ও রিপাবলিক টিভির বিরুদ্ধে টাকা দিয়ে টিভির রেটিং বাড়ানোর অভিযোগ এনেছিলেন মুম্বইয়ের পুলিশ কমিশনার।

সেই মামলায় পুলিশের সামনে হাজিরাও দিতে হয়েছে অর্ণবকে। তখন নিজের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন তিনি। কিন্তু এবার গ্রেফতার করা হল অর্ণবকে। এখন দেখার এই ঘটনার গতিপ্রকৃতি কোন দিকে যায়।

 

সুত্র: THE WALL

আরও পড়ুন ::

Back to top button