রাজনীতিরাজ্য

শুভেন্দুর ভিডিওগুলো ফাঁস করলে সবাই চমকে যাবে!: কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়

অমিত শাহর হাত ধরে শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর প্রত্যাশিতভাবেই তাঁর দিকে ধেয়ে এল কটাক্ষের তীর। সাংবাদিক সম্মেলনে রীতিমতো বোমা ফাটালেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। সরাসরি শুভেন্দুর বিরুদ্ধে তলে তলে বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রাখার অভিযোগ তুলে দিলেন তিনি। যা নিয়ে উত্তাল রাজ্য-রাজনীতি।

এদিন মেদিনীপুরের মঞ্চে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ‘দাদা’ বলে সম্বোধন করেন শুভেন্দু। তারপরই জানান, ২০১৪ সালে থেকেই অমিত শাহর সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে তাঁর।

উত্তরপ্রদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী তাঁকে অমিত শাহর সঙ্গে দেখা করতে সাহায্য করেছিলেন। এরপরই প্রশ্ন উঠতে শুরু করে, তবে কি অন্দরে অন্দরে বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে উঠছিল শুভেন্দুর? সেই জল্পনাকেই আরও খানিকটা উসকে দিলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

তৃণমূল সাংসদ বলেন, ‘দেখলেন তো নিজেই আজ বলে দিল ২০১৪ সাল থেকে সম্পর্ক রয়েছে। আমি জানতাম ওর তলে তলে বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে। মমতাদিকে অনেকবার এই বিষয়টা বলার চেষ্টা করেছি। কিন্তু দিদি আমার কথা বিশ্বাসই করেননি।’

আরও পড়ুন: শুভেন্দুর কুশপুতুলে আগুন, জুতোর মালা পোস্টারে

কল্যাণের দাবি, সরকারের সব সুবিধা নিয়ে যিনি শেষমেশ সরে দাঁড়ান, দলে থাকাকালীন অন্য পার্টির সঙ্গে যোগাযোগ করেন, তাঁকে বিশ্বাস করা যায় না। এমনকী তিনি এও বলেন, গত বছর ডিসেম্বরে তাঁকে তিন বিজেপি নেতাও জানিয়েছিলেন, শুভেন্দুর ‘বিজেপি প্রীতি’র কথা। তাই শুভেন্দুর এই ‘রূপ’ অবাক করেনি তৃণমূল নেতৃত্বকে।

এ রাজ্যে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীদের অন্যতম হিসেবে উঠে আসছে শুভেন্দুর নাম। অমিত শাহ আবার বলেছেন, বাংলার লোকই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হারিয়ে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী হবেন। সেই পরিপ্রেক্ষিতেই এদিন কল্যাণের তোপ, ‘আমার কাছে শুভেন্দুর এমন সব ভিডিও আছে, তা দেখালে সবাই কিন্তু চমক যাবে।

কী সব তার মুখের ভাষা! এ নাকি মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী? এই সব ভাষা বলে সে! সব ভিডিওই রাখা আছে।’ হুঁশিয়ারির সুরেই একুশে নির্বাচনী লড়াইয়ের দামামা বাজিয়ে রাখলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

 

সুত্র: সংবাদ প্রতিদিন

আরও পড়ুন ::

Back to top button