রাশিফল ও ভবিষ্যৎ

কেমন মানুষ আপনি? জেনে নিন জ্যোতিষীর দৃষ্টিতে

পৃথিবীতে এত এত মানুষ, আর প্রতি জন মানুষের মাঝেই রয়েছে কিছু সাদৃশ্য-বৈসাদৃশ্য। এক হিসেবে প্রতিটি মানুষই স্বতন্ত্র, এবং এখানেই অন্যান্য প্রাণীর সাথে মানুষের বড় পার্থক্য এখানেই। কিন্তু এর পরেও মানুষের জীবনে, আচার আচরণে এবং ব্যক্তিত্বের দিক দিয়ে দেখা যায় অদ্ভুত মিল। এভাবে একই ধরণের ব্যক্তিত্বের মানুষকে কিভাবে আলাদা করা যায়? উপায় হলো তাদের রাশি। একই রাশির মানুষের জীবনে যেমন, চরিত্রের দিক দিয়েও তেমন অনেক রকমের সাদৃশ্য দেখা যায়।

রাশি চক্রে আছে ১২টি রাশি। জন্ম তারিখ ভিত্তিতে নির্ণয় করা হয়ে থাকে একজন মানুষের রাশি পরিচিতি। প্রত্যেক রাশির জাতক বা জাতিকাদের আছে আবার ভিন্ন ভিন্ন বৈশিষ্ট্য। আপনার রাশি কী? জানতে চান, কোন রাশির মানুষ কেমন হয়ে থাকে? রাশি চক্র ভেদে ১২ রাশির মানুষদের উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য গুলো নিয়ে আজকের এই আয়োজন, প্রিয় ডটকমকে তা জানিয়েছেন শখের জ্যোতিষী ইমতিয়াজ শাফিকুল ইসলাম।

মেষ (মার্চ ২১- এপ্রিল ১৯)
স্বতঃস্ফূর্ত এবং খুব সহজেই আপনার বন্ধু বনে যেতে পারে এই রাশির মানুষগুলো। পরিবারের প্রতি খুব মনোযোগ দিয়ে থাকেন তারা। আপনার পরিবারে যদি একজনও মেষ রাশির জাতক/জাতিকা থাকে তাহলেই বুঝতে পারবেন। পুরো পরিবারকে ভালোবাসা দিয়ে আগলে রাখতে চেষ্টা করেন তারা। উদার এবং দানশীলতা দেখা যায় তাদের মাঝে। মানুষ হিসেবে অসাধারন এই মেষ কিন্তু প্রয়োজনের সময়ে হয়ে যেতে পারেন ভীষণ একগুঁয়ে। কোন ব্যাপার নিয়ে তাদের সাথে তর্কে যাবেন না যেন। নিজের বক্তব্যকে সঠিক প্রমান করার জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা আপনার সাথে তর্ক চালিয়ে যেতে পারবেন তারা। আর তাদেরকে ঘাঁটানো তো এর চাইতেও খারাপ বুদ্ধি। মেষ রাশির কোন জাতক আপনার ওপর একবার রেগে গেলে তার জন্য পস্তাতে হবে আপনাকে।

বৃষ (এপ্রিল ২০- মে ২০)
খুব বিপদে পড়েছেন? কারন সাহায্যের প্রয়োজন? নিশ্চিন্তে বৃষ রাশির জাতক বন্ধুটির শরনাপন্ন হতে পারেন। বন্ধুর প্রয়োজনে সাড়া দিতে সদা প্রস্তুত তারা। বৃষ রাশির মানুষ যখন কোনো কিছু অর্জন করতে চায় তখন একেবারে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করতে থাকে। এই জন্য তাদের বিপক্ষে দাঁড়ালে বেশ কঠিন প্রতিযোগিতার জন্য প্রস্তুত হয়ে নিন। ব্যক্তিগত জীবনে একটু বিরক্তিকর তারা, অন্যের মনোযোগ আকর্ষণ করতে পছন্দ করে। স্বভাবগতভাবেই তারা একটু অলস হয়, ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে দিন পার করে দিতে পারেন অনেকেই।

মিথুন (মে ২১- জুন ২০)
মিথুন রাশির বন্ধুটির সাথে যতক্ষণ ইচ্ছে গল্প করতে পারেন, খুব মন দিয়ে শুনতে থাকবে তারা। তাদের ব্যক্তিত্বের অন্যতম একটি বৈশিষ্ট্য হলো তারা প্রয়োজন হলে অন্যকে খুব সহজে বিভ্রান্ত করে দিতে পারে। তারা নিজেরা আবার হয়ে থাকেন অনেকটাই ভুলোমনা, জিনিসপত্র এখানে সেখানে রেখে হারিয়ে ফেলেন তারা। সুতরাং তাদেরকে কোন কাজ করতে দিলে বা তাদের কাছে কোন কিছু রাখতে দিলে সাবধান থাকুন। কাজটির ব্যাপারে তাদেরকে বারবার মনে করিয়ে দিন নয়ত বেচারা বেমালুম ভুলে যাবে।

কর্কট (জুন ২১ থেকে জুলাই ২২)
আপনি সারা জীবনে যত মানুষের সাথে মেশার সুযোগ পাবেন, তার মাঝে সবচাইতে যত্নশীল হলো কর্কট। খুব সৃজনশীল হয় তারা। আপনার বন্ধুমহলে শিল্পী এবং পাগলাতে ধরণের কেউ থাকলে খোঁজ নিয়ে দেখতে পারেন সে কর্কট কিনা। ছন্নছাড়া এবং উড়নচণ্ডী ধরণের মানুষ। পার্টি করতে এরা সিদ্ধহস্ত। আপনার বড় এমনকি সমবয়সী বন্ধু হলেও তারা আপনার যত্ন নেবে এবং দেখেশুনে রাখবে। এমন একটি বন্ধু যদি পেয়ে যান, তবে তাকে হারাবেন না যেন!

সিংহ (জুলাই ২৩- অগাস্ট ২২)
এরা কথা বলতে বেশ ভালবাসে। সাধারণত হাসিখুশি থাকে বটে কিন্তু যখন মন খারাপ করে ফেলে তখন গজগজ করতে থাকে এবং একটু শিশুসুলভ আচরণ করে থাকে। বেশিরভাগ হয় একটু একঘেয়ে প্রকৃতির, অর্থাৎ এরা কোন পরিস্থিতিতে কি করবে সেটা আপনি বুঝতে পারবেন সহজেই। তবে তারা মজা করতেও জানে বটে। যে কাজের প্রতি মনোযোগ দেয়, সেই কাজে পারদর্শী হয়ে ওঠে।

কন্যা (অগাস্ট ২৩- সেপ্টেম্বর ২২)
কন্যারাশির মানুষ বেশ জেদি হয় এবং যে সিদ্ধান্ত নিতে ভালবাসে এবং সাধারণত ভালো সিদ্ধান্ত নিতে পারে। শুধু তাই নয়, ঝুঁকি নিতেও এরা সিদ্ধহস্ত। অন্যদেরকে সহজেই যেমন শ্রদ্ধা করে, তেমনি কোনো কারণে সেই শ্রদ্ধা একবার চলে গেলে আর ফিরে আসে না।

তুলা ( সেপ্টেম্বর ২৩- অক্টোবর ২২)
প্রথম দেখায় খুবই ভালো লাগবে এই রাশির মানুষকে। এরা ঝামেলা এড়াতে যেমন পটু, ঝামেলা তৈরিতেও তেমনি পটু। সাধারণত খেলাধুলা পছন্দ করে। জীবনের যে কোন পরিস্থিতিতে তুলা রাশির বন্ধু যথেষ্ট উপকারী।

বৃশ্চিক (অক্টোবর ২৩- নভেম্বর ২১)
এদের রসবোধ খুবই ভালো। মজা করতে পছন্দ করে। নতুন নতুন অভিজ্ঞতা পছন্দ করে। এরা টাকা বানাতে পছন্দ করে, আবার সেই টাকা খরচ করতেও পারে। সহজেই এদের সাথে বন্ধুত্ব করা যায় তবে সেই বন্ধুত্ব টিকিয়ে রাখতে হবে আপনাকে।

ধনু (নভেম্বর ২২ থেকে ডিসেম্বর ২১)
এই রাশির মানুষ বন্ধু ছাড়াও জীবন কাটিয়ে দিতে পারে। খুব সহজে মেজাজ খারাপ করে ফেলতে পারে। ধনু রাশির মানুষের মেজাজ খারাপ আছে বুঝতে পারলে তাকে না ঘাঁটানোই ভালো। কারও প্রতি গভীর মমতা তৈরি হলেও সেটা প্রকাশ করে না সহজে। নিজস্ব ব্যাপার-স্যাপার গোপন রাখতে ভালোবাসে।

মকর ( ডিসেম্বর ২২- জানুয়ারি ১৯)
অন্যান্য রাশির মানুষের সাথে প্রচ্ছন্ন একটা প্রতিযোগিতা দেখা যায় এর। এরা রান্না করতে ভালোবাসে, কিন্তু একটু অলস প্রকৃতির হওয়ায় সবসময় রান্না করে না, অন্যের রান্না বা বাইরে রেস্টুরেন্টে গিয়ে খাওয়া পছন্দ করে। নিজের পছন্দের কোন কিছু পেলে তার জন্য প্রাণ উজাড় করে দেয়।

কুম্ভ (জানুয়ারি ২০- ফেব্রুয়ারি ১৮)
এর ওপরে কোন কাজের ভার দিলে আপনি নিশ্চিন্তে থাকতে পারেন, কারন তারা নিজের দায়িত্ব পালনে সর্বাত্মক চেষ্টা করে। একটু অগোছালো প্রকৃতির হয় এরা। আপনি এর কাছ থেকে যা আশা করবেন, তার চাইতেও পাবেন বহুগুণে বেশি। এরা পোষা প্রাণীর প্রতি বেশি যত্নবান হয়ে থাকে।

মীন (ফেব্রুয়ারি ১৯- মার্চ ২০)
অন্যদের মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে থাকতে পছন্দ করে এরা। অন্যদের প্রতি এদের আস্থা হয় অতিরিক্ত। আস্থা ভেঙ্গে যাবার কারণে কষ্টও পায় এরা সহজে। সব পরিস্থিতিতে ঠিক কাজটি করতে চেষ্টা করে এবং এই কারণে অনেক সময় অন্যদের থেকে পিছিয়ে যায়। এর বন্ধু হলে আপনি ভাগ্যবান। কিন্তু যারা মীন রাশি, তাদের উচিত বন্ধু নির্বাচনে একটু খুঁতখুঁতে হওয়া। কারন তার বন্ধুত্বের সুযোগ নিয়ে থাকেন অনেকেই।

আরও পড়ুন ::

Back to top button