বলিউড

যেভাবে নিজেকে বারবার বিতর্কে জড়িয়েছেন সাইফ আলি খান

Saif Ali Khan : যেভাবে নিজেকে বারবার বিতর্কে জড়িয়েছেন সাইফ আলি খান - West Bengal News 24

আক্ষরিক অর্থেই তিনি ‘নবাব-পুত্র’। মনসুর আলি খান পতৌদি এবং শর্মিলা ঠাকুরের পুত্র সাইফ আলি খান। মাত্র ২৩ বছর বয়সে মায়ের পদাঙ্ক অনুসরণ করে পা রেখেছিলেন বলিউডে। খ্যাতির চাদর গায়ে মুড়ে এর পর পেরিয়েছেন অনেকটা পথ। তার মাঝেই জড়িয়েছেন একাধিক বিতর্কে। ১৬ আগস্ট ছিল তার জন্মদিন। ‘ছোট নবাব’-এর জন্মদিন উপলক্ষে ফিরে দেখা যাক তার বর্ণময় জীবন।

সাইফের জীবনে বিতর্কের তালিকা নেহাত ছোট নয়। তবে শীর্ষে রাখা যায় ২০১২ সালে তাজ হোটেলে ঘটে যাওয়া ঘটনাকে। কী হয়েছিল সেখানে?

তাজ হোটেলে খাওয়া-দাওয়া করতে গিয়েছিলেন সাইফ এবং কারিনা। তারকা জুটির সঙ্গেই ছিলেন কারিনার বোন কারিশ্মা কাপুর, মালাইকা অরোরা এবং অমৃতা অরোরা।

আরও পড়ুন : দুশ্চিন্তায় আল্লু অর্জুন

ইকবাল মীর শর্মা নামে এক প্রবাসী ব্যবসায়ী হোটেলে সাইফদের প্রচণ্ড হাসাহাসিতে আপত্তি জানিয়েছিলেন। তাতেই নাকি প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হয়ে সাইফ তাকে ধমকাতে শুরু করেন। এমনকি রাগ সামলাতে না পেরে সেই ব্যবসায়ীর নাকে ঘুসি মেরে দেন তিনি।

সাইফ যদিও সাফাই দিতে গিয়ে অন্য কাহিনি শুনিয়েছিলেন। তার অভিযোগ অনুযায়ী, সেই ব্যবসায়ী অভিনেতার সঙ্গে থাকা নারীদের অসম্মান করছিলেন। ইকবাল এত সহজে ছেড়ে দেওয়ার পাত্র ছিলেন না। সাইফকে আদালত পর্যন্ত টেনে নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি।

এই বিতর্কই জন্ম দেয় নতুন সমস্যার। এসসি আগরওয়াল নামে এক তথ্য অধিকার আন্দোলনের কর্মী কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে সাইফের পদ্মশ্রী ফিরিয়ে নেওয়ার দাবি তোলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তেমন কিছুই ঘটেনি।

তবে একদম শুরুতেই পদ্মশ্রী ফিরিয়ে দিতে চেয়েছিলেন সাইফ। তিনি মনে করেছিলেন, সরকারের কাছ থেকে এত বড় সম্মান পাওয়ার যোগ্যতা তার নেই। বাবা মনসুর আলি খান পতৌদির উপদেশ মেনে পদ্মশ্রী গ্রহণ করেছিলেন সাইফ।

১৯৯৮ সালে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শুটিংয়ের সময় কৃষ্ণসার হরিণ শিকার করার অপরাধে গ্রেফতার হয়েছিলেন সালমান খান। পরবর্তীকালে সেই মামলায় নাম জড়ায় তার সহকর্মীদেরও। নিলাম, টাবুদের সঙ্গে সেই তালিকায় ছিলেন সাইফ। অভিযোগ, সালমানকে হরিণ শিকার করার জন্য ইন্ধন জুগিয়েছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন : সন্দীপ্তা থাকলে অন্য নারীর প্রেমে পড়ার প্রয়োজন নেই: রাহুল

২০১৯ সালে সেই মামলার শুনানির জন্য যোধপুর আদালতে গিয়ে আবার নতুন বিতর্কে জড়িয়েছিলেন সাইফ। যোধপুর বিমানবন্দর থেকে সাইফ নিজের গাড়িতে উঠতেই সাংবাদিকরা ঘিরে ধরেন। তাদের এড়িয়ে যাওয়ার জন্য চালককে গাড়ির জানলার কাচ তুলে দিতে বলেন সাইফ। তা না করলে তাকে মারার ভয় দেখিয়ে তিনি বলেন, “গাড়ির জানলার কাচ তোল, না হলে এক থাপ্পড় মারব।”

সংবাদমাধ্যমকে এড়াতে গিয়ে উল্টো আরও বেশি করে তাদের নজরে চলে আসেন সাইফ। গাড়ির চালকের সঙ্গে এই রূঢ় ব্যবহারের কথা প্রকাশ্যে আসতেই তীব্র নিন্দার মুখে পড়তে হয় তাকে।

এছাড়াও ইসলাম ধর্মাবলম্বী হয়ে হিন্দু কারিনাকে বিয়ে করা, পুত্রের নাম তৈমুর রাখার জন্যও একাধিকবার সাধারণ মানুষের রোষের মুখে পড়েছেন তিনি।

সম্প্রতি ‘অ্যামাজন প্রাইম’-এর ‘তাণ্ডব’ সিরিজে অভিনয় করে বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন তিনি। হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল এই সিরিজের বিরুদ্ধে। বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। জলঘোলা হয় বিস্তর।

আরও পড়ুন ::

Back to top button