রাজ্য

সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের রত্নার সঙ্গে নাম জুড়ল শোভনের, ফেসবুক পোস্ট ঘিরে সরগরম

স্ত্রীর সঙ্গে চরম বিরোধ। থাকেন বৈশাখীর সঙ্গে। এরই মধ্যে আবার রত্নার নাম করে নতুন ফেসবুক পোস্ট করেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। তারপরেই নতুন করে জল্পনার পারদ চড়তে শুরু করেছে। আবার কি চার হাত এক হতে চলেছে তা নিয়ে জল্পনার পারদ চড়তে শুরু করেছে। তাহলে বৈশাখীর কি হবে। তিনি তো ডিভোর্স চেয়ে বসেছেন তাঁর পূর্বতন স্বামীর কাছ থেকে।

এই অবস্থায় যদি শোভন আবার রত্নার কাছে ফিরে যান তাহলে কী হবে। এরকম না মন্তব্য করতে শুরু করেছেন নেটিজেনরা। কিন্তু আসল সত্যিটা কী তা প্রকাশ্যে আসতেই চমকে উঠেছেন সকলে। জানা গিয়েছে এই শোভন সেই শোভন নন, ইতি শোভন মুখোপাধ্যায়। যাঁকে কলকাতার প্যাডম্যান বলা হয়।

দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে স্ত্রী রত্নার সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হয়েছে শোভন চট্টোপাধ্যায়। স্ত্রীর সঙ্গে বিরোধের অন্যতম কারণ নাকি বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বন্ধুত্ব। বৈশাখীর সঙ্গে নাকি একটু বেশিই বন্ধুত্বে জড়িয়ে পড়েছিলেন শোভন। তাই নিয়ে স্ত্রী রত্নার সঙ্গে বিবাদ এবং বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে আসা। গত দেড় বছর ধরে বৈশাখীর সঙ্গেই রয়েছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। সম্প্রতি তিনি স্ত্রী রত্নার কাছে ডিভোর্স চেয়েছেন। কিন্তু রত্না তা দিতে নারাজ। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন কোনও ভাবেই শোভন চট্টোপাধ্যায়কে তিনি ডিভোর্স দেবেন না।

আরও পড়ুন : ভবানীপুরে ধুন্ধুমারকাণ্ডে দিলীপের উপর হামলার ঘটনায় গ্রেফতার ৮

দম্পত্যের টানাপোড়েন থেকেই বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেস ছাড়েন শোভন চট্টোপাধ্যায়। দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হয় তাঁর। তারপরেই তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে লোকসভা ভোটের আগে বিজেপিতে যোগ দেন শোভন। কিন্তু বিজেপিতেও তেমন আসর জমিয়ে উঠতে পারেননি তিনি। এক কথায় শোভন-বৈশাখী একঘরেই হয়ে ছিলেন বিজেপিতে।

টিকিট না পেয়ে শেষে বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক ত্যাগ করেন তিনি। তারপরে আবার তৃণমূলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়াতে শুরু করেন শোভন-বৈশাখী। তাঁদের বন্ধুত্ব এখনএতটাই গাঢ় হয়েছে যে বৈশাখীর এবার তাঁর স্বামীর কাছে ডিভোর্স চেয়েছেন। তিনি প্রকাশ্যেই সাংবাদিক সম্মেলন করে স্বামীর কাছে ডিভোর্ড চেয়েছেন।

শোভন-বৈশাখীর বিয়ের জল্পনা যখন চরমে ঠিক তখনই বৈশাখী কোটি টাকা দিয়ে রত্নার বাড়িটি কিনে নিয়েছেন। তারপরেই আরও পারদ চড়েছে ২ জনের। রত্নার বাড়িটি কেনার পরেই সম্পর্কের তিক্ততা রীতিমত হুঙ্কারে পরিণত হয়েছেন। শোভনের সঙ্গে বৈশাখীর বিয়ে কী করে হয় তা নিয়ে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলেন তিনি। এরই মাঝে আবার নতুন ফেসবুক পোস্ট ঘিরে জল্পনার পারদ চড়তে শুরু করেছে। নেটিজেনরা শোরগোল ফেলে গিয়েছেনএত গণ্ডগোলের পরে আবার শোভন-রত্না হাত মেলাচ্ছেন।

আরও পড়ুন : বিজেপিতে ফের ধাক্কা! বিজেপির সমস্ত পদ থেকে ইস্তফা দিলেন অভিনেতা সুমন বন্দ্যোপাধ্যায়

এর খানা তল্লাশি জানা গিয়েছে শোভন-রত্নার নাম করে যে পোস্টটি ফেসবুকে করা হয়েছে সেই শোভন আসলে শোভন চট্টোপাধ্যায় নন, শোভন মুখোপাধ্যায়। যাঁেক কলকাতার প্যাডম্যান বলা হয়ে থাকে। রত্না চট্টোপাধ্যায়ের অনুমতি নিয়েই তিনি এই পোস্টটি করেছেন বলে জানা গিয়েছে। নেটিজেনদের নজর পাবে বলেই এই পোস্টটি তিনি। রত্নার ওয়ার্ড থেকেই শুরু হচ্ছে শৌচাগারে মহিলাদের জন্য বিনামূ্ল্যে প্যাড বিতরণের কর্মসূচি। সেকারণেই এই পোস্ট করে নেটিজেনদের দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করেছেন তিনি।

সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া

আরও পড়ুন ::

Back to top button