রাজনীতিরাজ্য

গণ ইস্তফা বিজেপিতে!

বিজেপিতে ফের উঠল কামিনী কাঞ্চন ইস্যু। আর একে সামনে রেখেই জেলা কার্যকরী কমিটি থেকে গণইস্তফা দিলেন নেতারা। সেই সঙ্গেই স্বজন পোষণের অভিযোগও উঠেছে।

বঙ্গ বিজেপিতে নির্বাচনের পর থেকেই ফাটল বাড়ছে, সেই তালিকায় এবারে জুড়ল বারাসত সাংগঠনিক জেলা কমিটি। বিজেপির জেলা কমিটির পদ থেকে ১৫ জন সদস্য ইস্তফা দিলেন।

জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে তোপ দেগে রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারকে চিঠি লেখেন নেতারা। ‘শাসক দলের নেতা মন্ত্রীদের সঙ্গে আঁতাত করে জেলা সংগঠনকে ধুলিস্যাত্‍ করছেন জেলা সভাপতি, এমনই অভিযোগ করা হয়েছে ওই চিঠিতে।

ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘বারাসত সাংগঠনিক জেলার সভাপতি তাপস মিত্র ব্যক্তি আক্রোশের বশবর্তী হয়ে জেলার বিভিন্ন প্রান্তে দীর্ঘদিনের সক্রিয় বরিষ্ঠ কার্যকর্তাদের সমস্ত দলীয় কর্মসূচি থেকে দূরে রেখেছেন।

শুধু তাই নয়, তাদের যোগ্য সম্মান ও উপযুক্ত সাংগঠনিক স্থান না দিয়ে অযোগ্য, অথচ জেলা সভাপতির কাছের লোকেদের মুড়ি-মুড়কির মতো পদ বিলি করছেন।

শুধু তাই নয়, ঐ চিঠিতে উঠে এসেছে কামিনী কাঞ্চন প্রসঙ্গও। চিঠিতে অভিযোগ করা হয়েছে, ‘কামিনী কাঞ্চন ও অর্থের বিনিময়ে পুরভোটের টিকিট অযোগ্য ব্যক্তিদের দিয়েছেন জেলা সভাপতি এবং শাসক দলের অঙ্গুলিহেলনে জেলার সংগঠনকে ধুলোয় মিশিয়ে দিচ্ছেন তিনি।

আর পুরভোটে বিজেপির জয়লাভ না করার এটাই কারণ বলে উল্লেখ করেন কমিটির সদস্যরা। তারা জানান, এসবের প্রতিবাদেই তারা জেলা কার্যকরী কমিটি থেকে পদত্যাগ করছেন।

প্রসঙ্গত, দলের বরিষ্ঠ নেতা তথাগত রায়, বাংলা বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির ভরাডুবির জন্য কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে তোপ দেগে কামিনী কাঞ্চন প্রসঙ্গ তুলেছিলেন।

পাশাপাশি এই চিঠিতে রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের কাছে জেলা সভাপতিকে অপসারণ করার দাবী করেন কমিটির সদস্যরা।

যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জেলা সভাপতি।

আরও পড়ুন ::

Back to top button