মুর্শিদাবাদ

দুই বান্ধবীকে সমকামী অপবাদ, গোপনাঙ্গে গরম রডের ছ্যাঁকা!

দুই বান্ধবীকে সমকামী অপবাদ, গোপনাঙ্গে গরম রডের ছ্যাঁকা!

দুই বান্ধবীর মধ্যে ‘বিশেষ সম্পর্ক’ রয়েছে- এই সন্দেহে তাদের মারধর করে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে তিন যুবকের বিরুদ্ধে। এমনকি, এক বান্ধবীর গোপনাঙ্গে গরম লোহার রড দিয়ে ছ্যাঁকা দেওয়ারও অভিযোগও উঠেছে।

মুর্শিদাবাদের সাগরদিঘি থানা এলাকায় সম্প্রতি এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ভুক্তভোগী দুই তরুণীর পরিবার। একজনকে ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও ভুক্তভোগীদের পরিবারের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার জানিয়েছে, গত ২৫ অক্টোবর এক তরুণী তার প্রতিবেশী এক বান্ধবীর বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত ১১টার দিকে ওই বান্ধবীর এলাকার তিন যুবক ওই ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে পড়েন।

কেন দুই তরুণী একই ঘরে ঘুমিয়েছেন- তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তারা। এরপর উত্তরের অপেক্ষা না করে দুই বান্ধবীকে ‘সমকামী’ অপবাদ দিয়ে মারধর করা হয়।

শুধু তাই নয়, ওই দুই তরুণীর পোশাক খুলে নিয়ে তাদের ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়। এক তরুণী বাধা দিতে গেলে তাকে নগ্ন করে তার গোপনাঙ্গ, পেট এবং উরুতে গরম রডের ছ্যাঁকা দেওয়া হয়। ওই সময় অন্য তরুণী বাধা দিলে তাকেও মারধর করা হয়।

পুলিশ জানায়, অভিযুক্তরা সবাই ভুক্তভোগী এক তরুণীর আত্মীয়। রডের ছ্যাঁকা দেওয়া তরুণীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তড়িঘড়ি তাকে সাগরদিঘি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে সপ্তাহখানেক চিকিৎসা চলার পর হাসপাতাল থেকে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

অন্য দিকে, নির্যাতনের ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ জানানোর এক সপ্তাহ পরও অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করতে না পারায় পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ভুক্তভোগীদের পরিবার।

যদিও পুলিশের দাবি, ইতোমধ্যেই সাহেবুল শেখ নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুরো ঘটনার তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন ::

Back to top button