রাজ্যে এবার এক ফোনেই চিকিৎসা পাবেন অসুস্থরা, বড়সড় ঘোষণা এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের !


রাজ্যে এবার এক ফোনেই চিকিৎসা পাবেন অসুস্থরা, বড়সড় ঘোষণা এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের !

 

ওয়েবডেস্ক : এবার আর ছোটখাটো চিকিৎসার জন্য যেতে হবে না হাসপাতালে। কারণ, এক ফোনেই মিলতে পারে চিকিৎসা। সাংবাদিক বৈঠকে একথাই ঘোষণা করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । রাজ্যের অসুস্থ ব্যক্তিদের চিকিৎসায় টেলি মেডিসিন পদ্ধতি চালু করার কথা জানালেন তিনি।

সোমবার মুখ্যমন্ত্রী জানান, “করোনা যোদ্ধাদের সম্মান জানিয়ে ১ জুলাই ছুটি ঘোষণা করা হল। ওইদিনই কোভিড ও অন্যান্য রোগীদের জন্য টেলি মেডিসিন পরিষেবা চালু করা হবে।

বেলা ১২টা থেকে ফোনে পরিষেবা দেওয়া শুরু হবে। প্রথম দফায় ১২টি নম্বর চালু করা হবে। যেকোনও জেলা থেকে ওই নম্বরে ফোন করা যাবে। পরবর্তী ক্ষেত্রে প্রতি জেলার জন্য একটি করে নম্বর চালু করা হবে। আজ, সোমবারের মধ্যে নম্বর পৌঁছে যাবে রাজ্যের প্রত্যেক জেলায়।”

করোনা সংক্রমণ রোখার জন্য লকডাউন করা হয়েছিল। তবে বর্তমানে আনলক ওয়ানে (Unlock 1) চলছে স্বাভাবিক ছন্দে ফেরার চেষ্টা। এই সময়ে হু হু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। প্রায় প্রতিদিন নিজেই নিজের রেকর্ড ভাঙছে সংক্রমিতের সংখ্যা। বহু মানুষই ভরতি হচ্ছেন হাসপাতালে।


তার ফলে হাসপাতালে যেতেও ভয় পাচ্ছেন অনেকেই। কারণ, অনেকেই ভাবছেন হাসপাতালে গেলেই হয় তো বাড়তে পারে সংক্রমণের আশঙ্কা। আবার

কোনও কোনও সরকারি হাসপাতালে করোনার চিকিৎসা হওয়ায় বহির্বিভাগও বন্ধ রাখা হয়েছে। তাই যাঁদের তুলনামূলক বেশি টাকা খরচ করে বেসরকারি হাসপাতালে যাওয়ার সামর্থ্য নেই, তাঁরা চিকিৎসা পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

বর্তমানে অনেক বেসরকারি হাসপাতালেই অনলাইনে রোগীর চিকিৎসা চলছে। সেই পথেই এবার হাঁটল রাজ্য সরকার। টেলি মেডিসিন ব্যবস্থা চালু করার কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। তার ফলে খুব সহজেই শুধুমাত্র বাড়িতে বসে একটি ফোন করেই মিলবে পরিষেবা।

এই ব্যবস্থায় রাজ্যের বহু মানুষ উপকৃত হবেন বলেই আশা করা হচ্ছে। তবে প্রথম কয়েকদিন একসঙ্গে অনেক রোগীর ফোন পেলে সমস্যা হতে পারে, সেকথা স্বীকার করে নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু টেলি মেডিসিন পরিষেবা চালুর ২-৩ দিনের মধ্যে সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে বলেই আশা তাঁর।

আপনার মন্তব্য

Recommended For You