অবশেষে প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ দিদি শ্বেতা, মোদিজি আপনি একটু দেখুন’, সুশান্তের মৃত্যু তদন্ত নিয়ে এবার


অবশেষে প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ দিদি শ্বেতা, মোদিজি আপনি একটু দেখুন', সুশান্তের মৃত্যু তদন্ত নিয়ে এবার

‘দয়া করে সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে এবার দৃষ্টিনিক্ষেপ করুন। ভারতীয় বিচার ব্যবস্থার উপর আমদের পূর্ণ আস্থা রয়েছে। আশা করি আমার ভাই সুবিচার পাবেই’, সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) মৃত্যুর তদন্ত নিয়ে এবার প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ অভিনেতার দিদি শ্বেতা কীর্তি সিং।

সম্প্রতি অভিনেতার বাবা কৃষ্ণ কুমার সিং পাটনার রাজীব নগর থানায় রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করছেন। যার ভিত্তিতে ইতিমধ্যেই বিহার পুলিশের ৪ জনের একটি টিম মুম্বই পৌঁছেছেন রিয়া তথা সুশান্ত-ঘনিষ্ঠদের জেরা করতে। বাকি কয়েকজনকে জেরা করতে পারলেও বিহার পুলিশ এখনও অবধি রিয়ার নাগাল পায়নি। কারণ তিনি আপাতত নিঁখোজ।

[ আরও পড়ুন : সুশান্তের অ্যাকাউন্ট থেকে আর্থিক কারচুপির অভিযোগ দায়ের ইডি’র ]

মুম্বই পুলিশের উপরও অসহযোগিতার অভিযোগ উঠেছে। দিন যতই গড়াচ্ছে সুশান্ত মৃত্যুরহস্য ক্রমশ জটিল হচ্ছে। পেশাগত টানাপোড়েন থেকে অভিনেতার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে নানাবিধ প্রশ্ন উঠছে। পুরোটাই ধোঁয়াশা এখনও অবধি। যদিও অনুরাগীদের সিবিআই তদন্তের দাবি আদতেও ধোপে টেকেনি সুপ্রিম কোর্টে।

অলকা প্রিয়া নামে জনৈক মহিলার দায়ের করা মামলার ভিত্তিতেই বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের প্রধান বিচারপতি শরদ অরবিন্দ ববদে সাফ জানিয়ে দেন যে, ‘পুলিশকে তাঁদের কাজ করতে দিন আগে।’ সেসব কিছুর রেশ ধরেই ভাইয়ের মৃত্যুর বিচারের আশায় এবার প্রধানমন্ত্রী মোদির দ্বারস্থ সুশান্তের দিদি শ্বেতা কীর্তি সিং।

[ আরও পড়ুন : এফআইআর নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন রিয়া (ভিডিও) ]

ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট শেয়ার করে মোদির (Narendra Modi) কাছে আবেদন জানিয়েছেন শ্বেতা। ‘স্যর, আমার মনে হয় আপনি নিজেও সত্যের পাশে দাঁড়ান। আমরা ভীষণই সাধারণ পরিবারের মানুষ। আমার ভাই যখন বলিউডে পা রাখল, ওর মাথার উপর কোনও গডফাদার ছিল না। আমাদের পাশে এখনও কেউ নেই সেরকম।

আপনার কাছে অনুরোধ দয়া করে তাড়াতাড়ি সুশান্তের মৃত্যু তদন্তে দৃষ্টি নিক্ষেপ করুন। কোনওরকম প্রমাণ লোপাট যেন না হয়। পুরো তদন্ত প্রক্রিয়াতেই যেন পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা হয়, নিশ্চিত করুন। বিচারের আশায় রয়েছি আমরা’, ইনস্টা পোস্টে এমনটাই লিখেছেন কীর্তি।

[ আরও পড়ুন : সুশান্তের আত্মহত্যার কারণ তদন্ত করবে না সিবিআই ]

অন্যদিকে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন সুশান্তের প্রাক্তন দেহরক্ষী। তাঁর কথায়, ‘সুশান্ত সিং রাজপুতের শরীর খারাপ হতে শুরু করে প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে ইউরোপ ট্যুর থেকে আসার পর থেকেই। ইউরোপ থেকে ফেরার পর রিয়া আমাকে ওষুধ আনতে পাঠাতেন। সেই প্রেসক্রিপশন দেখে দোকানদার একাধিকবার ভ্রু কুঁচকে জিজ্ঞেস করেছেন যে, কার জন্য এই ওষুধ…!’


সদ্য এক টেলিভশন চ্যানেলে প্রয়াত অভিনেতাকে নিয়ে মুখ খুলেছিলেন তাঁর প্রাক্তন দেহরক্ষী। সেখানেই রিয়ার বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ তোলেন তিনি। তাঁর কথায়, ‘বিগত কয়েক মাস ধরে সুশান্তের মধ্যে প্রচুর বদল এসেছিল। বিশেষ করে রিয়া চক্রবর্তীর (Reah Chakraborty) সঙ্গে ইউরোপ থেকে ঘুরে আসার পর উনি অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন।

[ আরও পড়ুন :  সুশান্তের বাবার রিয়ার বিরুদ্ধে যত অভিযোগ ]

একটা মানুষ যে জিমিং, সুইমিংয়ের মতো ফিটনেস অ্যাক্টিভিটি করতে ভালবাসতেন, তিনি এতক্ষণ ঘুমোন কী করে? ভাবতাম। আগে আমি ওঁর সঙ্গে ২৪ ঘণ্টা থাকতাম, কিন্তু রিয়া আসার পরই আমাকে কাজ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।


বদল এসেছিল ওর আচরণেও। সারাক্ষণ ঘুমতেন। ওষুধের ওভারডোজের জন্য কিনা জানি না, তবে রিয়া যে প্রেসক্রিপশন দিয়ে আমায় ওষুধ কিনতে পাঠাতেন দোকানদার অনেকবার আমায় জি়জ্ঞেস করেছেন যে, এটা কার প্রেসক্রাইব করা ওষুধ? উত্তরে বলেছিলাম, আমি জানি না। আমায় শুধু নিয়ে যেতে বলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’ সেই ট্যুরে ঠিক কী হয়েছিল? দেহরক্ষীর এমন মন্তব্যের পরই উঠছে প্রশ্ন।

[ আরও পড়ুন : মারাত্মক সড়ক দুর্ঘটনায় একাধিক হাড় ভেঙে গেছে রোহিনীর ]

সুত্র: সংবাদ প্রতিদিন

Recommended For You