বিনোদন

স্বস্তিকা এসব কি বলছেন?

অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখার্জি

মাথার একদিকের চুল কামিয়ে ফেলেছেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখার্জি। তাতেই হইচই। নানা জনের নানা মত। কেউ বলছেন, নির্ঘাত ক্যান্সার হয়েছে?‌ কেমোথেরাপি নিতে নিতে সব চুল পড়ে গেছে!‌ আবার কারও দাবি, নিশ্চই ড্রাগ নিচ্ছিল।

রিহ্যাবে যেতে হয়েছিল। ওখানেই চুল কেটে দিয়েছে। আর এসব কিছু যদি নাও হয়, তা হলে ‘‌স্রেফ মাথা খারাপ হয়ে গেছে! নয়ত একজন মহিলা এভাবে মাথা কামিয়ে ফেলে নাকি!‌‌‌’

যে সমাজে, সংস্কৃতিতে রূপকথার কেশবতী কন্যা থেকে কাব্যের বনলতার ‘‌অন্ধকার বিদিশার নিশা’‌র রোমান্টিকতা, সেই সমাজ এভাবে আঁতকে ওঠায় রীতিমত আমোদই পেয়েছেন স্বস্তিকা নিজে। টুইট করেছেন, ‘‌না আমি ক্যান্সারে আক্রান্ত নই ‌(‌আশা করি, ভবিষ্যতেও যেন না হই)‌। আমি ড্রাগ নিই না। গাঁজা, চরস খাই না।

[ আরও পড়ুন : বিয়ের পরিকল্পনা পরে করবো: চিত্রনায়িকা আইরিন ]

আমি রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টারেও যাইনি কখনও। এটা আমার মাথা। আমার চুল। আমার যা ইচ্ছে করবে, আমার চুলের সঙ্গে আমি তাই করব। সমস্ত প্রশ্নের উত্তর পেয়ে গিয়েছেন?‌ এবারে একটু শান্তি পান।’


‌ সঙ্গে নিজের একটা ছবিও পোস্ট করেছেন। কালো কুর্তা, চোখে কালো চশমা, কানে কালো রঙের বড় একটি দুল। রঙবেরঙের জানালার সামনে দাঁড়িয়ে চুলের নতুন স্টাইলের সঙ্গে তাঁর এই সাজে তাঁকে চমৎকার মানাচ্ছে।

কিন্তু যারা এখনও মেয়ে দেখতে এসে যত্নে–বাঁধা চুল খুলিয়ে দেখে নকল কি না, যেখানে নারীর রূপের আবশ্যিক শর্ত হয় তার ঘন চুলের ঢাল, তারা সম্ভবত এর পরেও বিষয়টা নিয়ে চুলোচুলি করবে। চুলচেরা বিশ্লেষণ হবে এমন খামখেয়ালিপনার। সেসব দেখে হয়ত মুচকি হাসবেন স্বস্তিকা।

আরও পড়ুন ::

Back to top button