বিনোদন

আজ গ্রেফতার হতে পারেন রিয়া চক্রবর্তী

আজ গ্রেফতার হতে পারেন রিয়া চক্রবর্তী

সুশান্ত সিং রাজপুত হত্যা মামলায় মূল অভিযুক্ত রিয়া চক্রবর্তীর দফায় দফায় জেরা চলছে। সিবিআই জেরার পর এবার নারকোটিকস বিভাগে জেরার মুখোমুখি অভিনেত্রী। তাঁর বাড়িতে গিয়ে তাঁকে হাজিরার নোটিশ দেওয়া হয়।

ইতিমধ্যেই নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর দফতরে পৌঁছেছেন তিনি। রিয়া চক্রবর্তীর আইনজীবী জানিয়েছেন যে, অভিনেত্রী নাকি গ্রেফতার হওয়ার জন্য প্রস্তুত।

এনসিবি আব্বাস লাখানি এবং করণ অরোরা নামে ২ মাদক পাচারকারী থেকে ৫৯ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করে। এর পরেই গ্রেফতার করা হয় সৌভিক কে। রিয়ার আইনজীবী বলছেন, “রিয়া চক্রবর্তী গ্রেফতার হওয়ার জন্য প্রস্তুত। কারণ এখানে তো ডাইনী খোঁজা চলছে।

কারকে ভালোবাসা যদি অপরাধের হয় তাহলে তার ফলাফল তিনি ভুগতে রাজি আছেন। তিনি নির্দোষ বলেই কোন আদালতে এখনো পর্যন্ত জামিনের আবেদন করেননি।”

শুক্রবার সৌভিক চক্রবর্তী কে গ্রেফতার করে এনসিবি। এদিন সকাল থেকে জিয়ার বাড়িতে তল্লাশি শুরু হয়। এইদিন গ্রেফতার করা হয় সুশান্তের হাউজ ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডাকেও। বুধবার পর্যন্ত এনসিবির হেফাজতে থাকছেন তারা।

আরও পড়ুন : প্রেমের গুঞ্জন নিয়ে যা বললেন রাশমিকা

তবে সৌভিক চক্রবর্তীর কাছ থেকে এখনও কোনও মাদক উদ্ধার হয়নি। তবে সৌভিক সেদিন জেরায় স্বীকার করেছেন যে সুশান্তের জন্যই তাদের বাড়িতে ড্রাগ আসতো। এবং রিয়ার নির্দেশেই সবটা হতো। ।

এছাড়াও যে দুজন মাদক পাচারকারীর কাছ থেকে গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে তাদের সঙ্গে সুশান্তের যোগ ছিল বলে জানা যাচ্ছে। গোটা ঘটনার তদন্ত করছে সিবিআই, ইডি, এবং এনসিবি। রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে রয়েছে আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ।

তবে রিয়ার পরিবারের দাবি, এক মধ্যবিত্ত পরিবার কে নিশানা করা হচ্ছে। সংবাদ মাধ্যমগুলি রিয়ার সঙ্গে ডাইনি খোঁজার মতন ব্যবহার করছে। রিয়া চক্রবর্তীর বাবাও আশঙ্কা করছেন যে, সৌভিকের পর এবার তার মেয়েকে গ্রেফতার করা হবে।

তিনি একটি বিজ্ঞপ্তিতে বলেছেন, “অভিনন্দন ভারত। আমার ছেলে গ্রেফতার হয়েছে। আমি নিশ্চিত যে এবার আমার মেয়ের পালা। তবে তারপরে কে আমি জানি না। আপনারা একটা সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবার কে ধ্বংস করে দিয়েছেন। কিন্তু হ্যাঁ বিচার পাওয়ার জন্য সমস্ত কিছুই ঠিক। জয় হিন্দ।”

 

আরও পড়ুন ::

Back to top button