বিচিত্রতা

পরকীয়া সন্দেহে বয়ফ্রেন্ডের পুরুষাঙ্গ কেটে ফ্লাশ করে দিল প্রেমিকা!


পরকীয়া সন্দেহে বয়ফ্রেন্ডের পুরুষাঙ্গ কেটে ফ্লাশ করে দিল প্রেমিকা! - West Bengal News 24


বয়ফ্রেন্ড পরকীয়ায় জড়িত। আর এই সন্দেহেই ঘুমোনোর সময় তাঁর পুরুষাঙ্গ কেটে তা বাথরুমে ফ্ল্যাশ করে দিল প্রেমিকা। শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই ঘটেছে তাইওয়ানের ছাংউয়া কাউন্টির জিহু টাউনশিপে।

একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, হুয়াং নামে ৫২ বছরের আক্রান্ত ব্যক্তি তিন সন্তানের পিতা। তা সত্ত্বেও দশ মাস আগে অভিযুক্ত ৪০ বছর বয়সি ফুং নামে এক যুবতীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান। বিবাহবিচ্ছিন্না ওই যুবতীর সঙ্গে একসঙ্গে থাকতেও শুরু করেন। কিন্তু পরবর্তীতে যুবতীর সন্দেহ হয়, ওই ব্যক্তি পরকীয়ায় জড়িত। সম্পর্কের বয়স যত বাড়তে থাকে, ততই সন্দেহ আরও গাঢ় হতে থাকে। এরপরই সম্প্রতি ওই কাণ্ড ঘটায় ওই মহিলা।

আরও পড়ুন : হাফ প্যান্ট পরে বিয়ের পিঁড়িতে বসে ভাইরাল বর

আক্রান্ত ব্যক্তি জানিয়েছেন, অন্যান্য দিনের মতোই রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন। কিন্তু মাঝরাতে আচমকাই ওই মহিলা রান্নাঘর থেকে ছুরি এনে তাঁর পুরুষাঙ্গ কেটে দেয়। জানা গিয়েছে, প্রায় ২০ শতাংশ কেটে ফেলে সে। এরপর কোনওভাবেই যাতে জোড়া না যায়, সেজন্য ওই অংশটি বাথরুমে গিয়ে ফ্ল্যাশ করে দেয়। যদিও পরবর্তীতে নিজেই আবার পুলিশে খবর দেন। এরপরই ওই ব্যক্তিকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রক্ত পড়া বন্ধ করতে দ্রুত অস্ত্রোপচার করেন চিকিৎসকরা।

বর্তমানে অবশ্য আগের তুলনায় কিছুটা হলেও সুস্থ রয়েছেন ওই ব্যক্তি। খাওয়াদাওয়া কিংবা জলপানও করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে তাঁকে। তবে আগামিদিনে তিনি আর সঙ্গম করতে পারবেন না। এমনটাই জানিয়ে দিয়েছেন চিকিৎসকরা। সেক্ষেত্রে তাঁকে কৃত্রিম উপায় অবলম্বন করতে হতে পারে। এদিকে, এই ঘটনায় ইতিমধ্যে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। যুবতীকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। এদিকে, এই ঘটনা জানতে পেরে অনেকেই অবাক হয়েছেন। কেবল সন্দেহের বশে এই ঘটনা কীভাবে ঘটালেন একজন, সেই প্রশ্নও তুলছেন অনেকে।



Related Articles

Back to top button