জাতীয়

শেষ মুহূর্তে যুক্তরাজ্যের প্রতিনিধিদলকে ফিরিয়ে দিল ভারত!

প্রতিবেদনে বলা হয়, উচ্চপদস্থ ১০ জন ব্রিটিশ কর্মকর্তার একটি প্রতিনিধিদল জানুয়ারি থেকে ভারতের সঙ্গে আলোচনা করছিল। নয়াদিল্লি এবং রাজস্থান সফর করার পরিকল্পনা ছিল তাদের।

ওই প্রতিনিধিদলের মূল লক্ষ্য ছিল যুক্তরাজ্য-ভারত মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি নিয়ে আলোচনা করা। কিন্তু ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের প্রেক্ষাপটে সেই লক্ষ্য অনেকটাই বদলে যায়।

গার্ডিয়ান বলছে, ব্রিটিশ ওই প্রতিনিধিদের পরিকল্পনা ছিল দিল্লিকে মস্কোর প্রতি আরও কঠোর অবস্থান নিতে রাজি করানো।

এর ফলে শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে যুক্তরাজ্যের উচ্চপদস্থ প্রতিনিধিদলের ভারত সফরে আপত্তি জানায় হাইকমিশন। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।

এর আগে, গত মঙ্গলবার (২২ মার্চ) ইউক্রেনের পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে ফোনে আলোচনা করেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

এ সময় ইউক্রেনের সার্বভৌমত্বের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের আহ্বান জানান মোদি। আর জনসন বলেন, উভয় দেশেরই উচিত এই অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠা ও উত্তেজনা কমানোর জন্য প্রচেষ্টা জোরদার করা।

আরও পড়ুন: মুহূর্তের মধ্যেই ২ বার মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচল কিশোর (দেখুন সেই ভিডিও)

ভারত এখন পর্যন্ত ইউক্রেনে সামরিক পদক্ষেপের জন্য রাশিয়ার বিরুদ্ধে কোনো নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেনি বা মস্কোর নিন্দাও করেনি।

এ ছাড়া আন্তর্জাতিক চাপ থাকা সত্ত্বেও রাশিয়ার কাছ থেকে তেল কেনা অব্যাহত রেখেছে দিল্লি। কারণ, মস্কোর সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ করতে চায় না ভারত।

গত সপ্তাহে রাশিয়ার প্রতি ভারতের নিরপেক্ষ অবস্থান নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেন যুক্তরাজ্যের প্রতিনিধিরা। এটিও শেষ মুহূর্তে ভারতে তাদের সফর বাতিল হওয়ার অন্যতম কারণ হতে পারে বলে মনে করছেন অনেকে।

আরও পড়ুন ::

Back to top button