জাতীয়

অনিল দেশমুখের অপকর্ম সবই জানতেন, চাঞ্চল্যকর অভিযোগ!

অনিল দেশমুখের অপকর্ম সবই জানতেন, চাঞ্চল্যকর অভিযোগ!

মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করলেন মুম্বইয়ের প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার পরমবীর সিংহ। সিবিআইকে দেওয়া বয়ানে তাঁর দাবি, তত্‍কালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখের অপকর্ম নিয়ে তিনি মুখ্যমন্ত্রী ঠাকরে ও অন্যদের অবহিত করেছিলেন, কিন্তু তাঁরা এ কথা আগে থেকেই জানতেন এবং তাঁর কথায় কোনও গুরুত্ব দেননি।

পাশাপাশি তাঁর আরও দাবি, ২০২১-এর মার্চে তিনি অনিলের ‘কীর্তি’র কথা জানিয়েছিলেন এনসিপি প্রধান শরদ পওয়ারকেও।

এ ছাড়াও পরমবীরের দাবি, মুখ্যমন্ত্রী ঠাকরে ও অনিল তাঁকে নিলম্বিত পুলিশ আধিকারিক সচিন ওয়াজেকে বাহিনীতে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য চাপ দিয়েছিলেন।

বিশেষ আদালতে দেশমুখ ও তাঁর দুই সঙ্গীর বিরুদ্ধে যে চার্জশিট সিবিআই জমা দিয়েছে, পরমবীরের বয়ান তারই অংশ। দেশমুখের বিরুদ্ধে দুর্নীতি এবং পদের অপব্যবহারের অভিযোগ রয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বছর মার্চে শিল্পপতি মুকেশ অম্বানীর বাড়ির সামনে বিস্ফোরক সমেত গাড়ি আটক হওয়া এবং তদন্ত চলাকালীন ব্যবসায়ী মনসুখ হিরনের রহস্যজনক মৃত্যুর মামলায় সচিন ওয়াজেকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। অম্বানীর বাড়ির সামনে বিস্ফোরক সমেত গাড়ি আটকের মামলায় পরমবীরকে বদলি করা হয়।

তার পরেই তিনি অভিযোগ করেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেশমুখ মুম্বইয়ের বার এবং রেস্তরাঁ থেকে মাসে একশো কোটি টাকা তোলা আদায়ের জন্য চাপ দিতেন পুলিশকে। পরমবীরের এই অভিযোগ নিয়ে রাজনৈতিক শোরগোল শুরু হওয়ার পরে পদত্যাগ করেন দেশমুখ। তোলাবাজির অভিযোগ এনে তাঁকে গ্রেফতার করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডি।

মহারাষ্ট্র সরকারও পরমবীরের অভিযোগ খতিয়ে দেখতে এক সদস্যের তদন্ত কমিশন গঠন করে। কিন্তু তার পর আচমকাই উধাও হয়ে যান পরমবীর। তাঁর বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা হওয়ার পরে তিনি ফের সামনে আসেন।

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button