প্রযুক্তি

১২ হাজার কর্মী ছাঁটাই করতে চলেছে ‘মেটা’

১২ হাজার কর্মী ছাঁটাই করতে চলেছে ‘মেটা’

কিছুদিন আগে মার্ক জুকারবার্গের একটি মন্তব্যকে নিয়ে বেশ আলোচনা হয়েছিল। এবার সেই আলোচনাই যেনো আরও কয়েকগুন বেড়ে গেলো। আলোচনায় শোনা যাচ্ছে জুকারবার্গের সংস্থা ‘মেটা’র ১২ হাজার কর্মী ছাঁটাই হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই এই সম্ভাবনাকে ঘিরে চারদিকে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পরেছে।

এর আগে জুকারবার্গ জানিয়েছিলেন, ফেসবুকই একমাত্র টেক সংস্থা নয় যেখানে নতুন করে কর্মী নিয়োগ হচ্ছে না। সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম জুড়েই এক ছবি। এবার সামনে এল কর্মী ছাঁটাইয়ের সম্ভাবনাও।

সম্প্রতি প্রকাশিত এক রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, কোনো সাড়া শব্দ ছাড়াই ব্যাপক কর্মী ছাঁটাই করবে মেটা। যদিও সংস্থার তরফ থেকে সরকারিভাবে এ বিষয়ে কিছু বলা হয়নি, কিন্তু তবুও শোনা যাচ্ছে কাজের পারফরম্যান্স যাদের ভালো না তাদেরকেই ছাঁটাই করা হবে। সংস্থাটি একসাথে ১৫ শতাংশ কর্মীকেই ছাঁটাই করবে বলে ওই রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে কোনও কোনও ফেসবুক কর্মীর দাবি, বিষয়টিকে দেখানো হবে এভাবে, যেন ওই কর্মীরা নিজেরাই সংস্থা ছাড়ছেন। কিন্তু আসলে ইস্তফা দিতে বাধ্য করা হবে তাদের।

হার্ভার্ডের অধ্যাপক বিল জর্জ সম্প্রতি দাবি করেন, জুকারবার্গ ‘বস’ হিসেবে একদমই ভালো না। তার দাবিকে ঘিরে উত্তেজনা ছড়িয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় হার্ভার্ডের ওই ফেলো বলেন, ‘আমি মনে করি, যতদিন উনি আছেন ফেসবুকের বিশেষ উন্নতি কিছু হবে না। যে সমস্ত কারণে অনেকেই ওই সংস্থা ছেড়ে দিচ্ছেন, তার মধ্যে অন্যতম কারণ উনি নিজে। উনি সত্যিই দিগভ্রষ্ট হয়ে গিয়েছেন।’

তার এই দাবিকে ঘিরে বিতর্ক তৈরি হয়। সেই বিতর্ক শেষ হতে না হতেই জুকারবার্গের নতুন সিদ্ধান্তকে ঘিরে আলোচনা তৈরি হল। নিঃসন্দেহে এই আলোচনা সত্যি হলে জুকারবার্গ যে আরও বেশি সমালোচনার মুখে পড়বেন তাতে কোনো সন্দেহ নেই। সেই সঙ্গে আশঙ্কা তৈরি হবে মেটার ভবিষৎ নিয়েও।

আরও পড়ুন ::

Back to top button