জানা-অজানা

মৃত্যুর পর খুলে যায় চোখ, কাজও করে

মৃত্যুর পর খুলে যায় চোখ, কাজও করে

ইহলোক থেকে পরলোকে যাওয়ার পর শরীরের কী হয়? মানুষ মরে যাওয়ার পর শরীরে কী ধরনের কার্যকলাপ চলে? এমন নানান প্রশ্নের উত্তর অনেকের কাছেই অজানা। অনেক সময় এমন বহু প্রশ্নের সঠিক উত্তর জেনে ওঠা কঠিন হয়ে পড়ে।

কখনও খেয়াল করলে দেখবেন, কোনও কোনও ব্যক্তির মৃত্যুর সময় চোখ খোলা থাকে। কিন্তু কখনও খুঁজে দেখার চেষ্টা করেছেন, কেন এমন হয়?

বিজ্ঞানীদের মতে, মানুষ মারা গেলে হৃৎপিণ্ডের স্পন্দন বন্ধ হয়ে যায়। মস্তিষ্ক কাজ করা বন্ধ করে দেয়। শরীরের সমস্ত ক্রিয়াকলাপ থেমে যায়। এ কারণে মৃত্যুর পরপরই শরীরে অনেক পরিবর্তন দেখা দেয়। বিশেষ করে শরীর শক্ত হয়ে যায়। তবে মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পরেও চোখ কাজ করতে থাকে।

আরও পড়ুন :: যে কারণে নারীর গড় আয়ু বেশি

কেন এমন হয়?
মানুষের চোখের পাতা কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্র দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। স্নায়ুতন্ত্র মস্তিষ্কে সংকেত পাঠায়, ফলে চোখ বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু যখন মানুষ বেঁচে থাকে তখন এই সমস্ত প্রক্রিয়া সাধারণত বেশ ভালোভাবেই কাজ করে। এই কারণে, যখন হঠাৎ রোদের দিকে তাকানো হয় তখন চোখ বুজে যায়। আবার যখন ঘুম পায়, তখনও চোখ তা অনুভব করতে পারে। কিন্তু মৃত্যু হলে কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্র কাজ করা বন্ধ করে দেয়, যার কারণে চোখের উপর থেকে স্নায়ুর নিয়ন্ত্রণ শেষ হয়ে যায়। ফলে চোখের পাতা খোলা অবস্থাতেই থাকে।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ঘুমন্ত অবস্থায় মানুষ মারা যাওয়ার আগে জেগে ওঠে এবং তারপর তার চোখ খুলে যায়। এমতাবস্থায় মৃত্যুর পরও তার চোখ খোলা থাকবে সেটাই স্বাভাবিক। আরও একটি কারণ হল চোখের সঙ্গে সংযুক্ত পেশী চোখ খোলা ও বন্ধ করার কাজ করে। মৃত্যুর ক্ষেত্রে মস্তিষ্ক কাজ করা বন্ধ করে দিলেও, চোখের সেই সব পেশি কাজ করতে থাকে।

ঠিক কতক্ষণের জন্য চোখ কাজ করে?
বিজ্ঞানীদের মতে, মৃত্যুর পর চোখ পাঁচ ঘণ্টা কাজ করে। আপনি যদি চক্ষুদান করতে চান, তবে এই সময়ের মধ্যেই এটি করা উচিত। নাহলে ধীরে-ধীরে কর্নিয়ার কার্যক্ষমতা কমতে শুরু করে এবং তারপর এটি কাজ করা বন্ধ করে দেয়।

আরও পড়ুন ::

Back to top button