বিনোদন

মীরাক্কেলের বিচারকের আসন হারিয়ে পার্টি মুডে শ্রীলেখা (ভিডিও)

মীরাক্কেলের বিচারকের আসন হারিয়ে পার্টি মুডে শ্রীলেখা (ভিডিও)
শ্রীলেখা মিত্র

পরনে সিফনের সফেদ স্লিভলেস ড্রেস। মাথায় খোলা চুল। ঘর ভর্তি অতিথি। সমস্বরে বলে উঠেন ‘হ্যাপি বার্থ ডে’।–শ্রীলেখার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি ভিডিও ঘুরে বেড়াচ্ছে। তাতেই এমন দৃশ্য দেখা যায়।

আজ (৩০ আগস্ট) শ্রীলেখা মিত্রর জন্মদিন। গতকাল (২৯ আগস্ট) দিবাগত রাত ১২টায় নিজের বাড়িতে মেয়ে ও আগত অতিথিদের নিয়ে জন্মদিনের কেক কাটেন এই অভিনেত্রী।

সম্প্রতি জনপ্রিয় কমেডি শো মীরাক্কেলের বিচারকের আসন হারিয়েছেন শ্রীলেখা। ভারতের জি বাংলা চ্যানেল কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্তে বেশ বিষণ্ন হয়ে পড়েছিলেন তিনি। তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে চক্কর দিলে তেমনটাই বোঝা যায়। কারণ এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বেশ কিছু স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি। তবে বিষণ্নতা দূরে ঠেলে এক্কেবারে পার্টি মুডে রয়েছেন শ্রীলেখা।

আরও পড়ুন : জোর করে তো আর প্রেম করতে পারব না: পায়েল

জন্মদিনটি কীভাবে কাটালেন এমন এক প্রশ্নের উত্তরে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে শ্রীলেখা বলেন—হ্যান্ডলুমের সাদা রঙের শাড়ি কিনেছি। গরমে পরে আরাম। আর ‘ঈশ্বর সংকল্প’ নামে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থায় গিয়েছিলাম। ওখানে কিছু ভালো-মন্দ খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা করেছিলাম। কোনো দিনই অন্যদের মতো ইন্ডাস্ট্রিকে তেল দিতে পার্টি করিনি। আজও না। বরং সেই পয়সা বাঁচিয়ে কিছু অসহায় মানুষের মুখে অন্ন তুলে দিতে পারলে তৃপ্তি বেশি।

ইন্ডাস্ট্রির কর্মকাণ্ড নিয়ে মোটেও সন্তুষ্ট নন শ্রীলেখা, তা স্পষ্ট। এ অভিনেত্রী বলেন—শুধু ‘মীরাক্কেল’ নয়, একই সঙ্গে বেশ কয়েকটি বিজ্ঞাপন ও সিরিজের কাজও হারিয়েছি। তবু তেল দেওয়া আমার দ্বারা হবে না।

গত ১০ বছর ধরে মীরাক্কেলের বিচারক হিসেবে কাজ করছিলেন শ্রীলেখা। হঠাৎ কী কারণে তাকে বাদ দেওয়া হলো তা নিয়ে এখনো স্পষ্টভাবে মুখ খুলেননি এই অভিনেত্রী। তবে চ্যানেল কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন শ্রীলেখার ভক্তরা।

আরও পড়ুন ::

Back to top button