অপরাধজাতীয়

বিনা পয়সায় চা না দেওয়ার ‘অপরাধ’, গায়ে ‘ফুটন্ত দুধ ছুঁড়ে দিল’ পুলিশ!

বিহারের পটনার এসকে পুরি পুলিশ স্টেশন। এক নাবালক চা বিক্রেতার শরীরে গরম দুধ ছুঁড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে সেখানকার পুলিশ কর্মীদের বিরুদ্ধে। অন্তত ৬জন পুলিশ কর্মীর বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছে। বাসিন্দাদের অভিযোগ পুলিশ কর্মীদের বিনা পয়সায় চা দিতে চায়নি ওই নাবালক চা বিক্রেতা। পুলিশ কর্মীরা তার কাকা রমেশ রাইকেও মারধর করেছে বলে অভিযোগ। ওই কিশোরের পা ঝলসে গিয়েছে।

এদিকে যাওয়ার আগে ওই চায়ের দোকানেও পুলিশ কর্মীরা ভাঙচুর চালিয়েছে বলে অভিযোগ। তবে ঘটনার পরেই নড়েচড়ে বসে পুলিশ। ডিএসপি (সচিবালয়) ইতিমধ্যেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এসপি উপেন্দ্র শর্মা জানিয়েছেন, এনিয়ে তদন্ত করে রিপোর্ট জমা দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

আরো পড়ুন : চকোলেটের লোভ দেখিয়ে ৪ বছরের শিশুকে ধর্ষণ করল পরিচিত ‘কাকু’, গ্রেফতার অভিযুক্ত

এদিকে ওই থানার স্টেশন হাউজ অফিসার এসকে সিং অবশ্য এই ঘটনায় পুলিশ কর্মীদের জড়িত থাকার অভিযোগ মানতে চাননি। ওই কিশোরের দাবি, সোমবার সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ ৫-৬জন পুলিশ কর্মী আমার দোকানে চা খেতে এসেছিল। পান গুটখাও তারা চান। এরপর পয়সা চাইলেই ওরা রেগে যায়। ফুটন্ত দুধ আমার গায়ে ঢেলে দেয়।

কাকা বাঁচাতে এলে তাকেও মারধর করেছে। এর আগেও তারা আমার চায়ের দোকানে এসেছে। এদিকে ঘটনার পরই লোকজন জড়ো হয়ে যায়। তারা এই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তারা থানার সামনেও এনিয়ে বিক্ষোভ দেখান। অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি তারা তুলেছেন।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

আরও পড়ুন ::

Back to top button