আন্তর্জাতিক

পুতিনকে পাগল বলা সেই রুশ মডেলকে যেভাবে হত্যা করা হয়!

Gretta Vedler : পুতিনকে পাগল বলা সেই রুশ মডেলকে যেভাবে হত্যা করা হয়! - West Bengal News 24

সম্প্রতি রাশিয়ার জনপ্রিয় মডেল গ্রেটা ভেদলারের মরদেহ উদ্ধার করেছে সেখানকার পুলিশ। পাশাপাশি খুনিকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে খুনের কথা স্বীকার করেছেন খুনি। শুধু তাই নয়, বর্ণনা করেছেন ঠিক কীভাবে খুন করা হয়েছে।

গ্রেটার প্রাক্তন প্রেমিক দিমিত্রির ভাষ্যমতে, গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে মূলত অর্থ নিয়ে তাদের মধ্যে প্রথমে অনেক ঝগড়া হয়,এক পর্যায়ে তা হাতাহাতিতে পৌঁছায়। এরপরই তাকে পরিকল্পনা করে খুন করা হয়। এই খুনের পেছনে গ্রেটার রাজনৈতিক বা পুতিনবিরোধী কোনো কিছুর সঙ্গে সম্পর্ক নেই।

এরপর গ্রেটা নিখোঁজ হওয়ার পর তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নানান ছবি আপলোড করে নিয়মিত আপডেট রাখতেন সাবেক প্রেমিক দিমিত্রি। তবে সেই পোস্ট দেখে সন্দেহ জাগে ইউজেনি ফস্টার নামে গ্রেটার এক বন্ধুর। চলমান ইউক্রেনের যুদ্ধে যে খারকিভ শহর প্রায় ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে, সেখানকারই বাসিন্দা ইউজেনি। পুলিশের কাছে গ্রেটার পোস্ট নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে একটি অভিযোগ করেন। পরে মস্কোর এক বন্ধুর সাহায্যে পুলিশের কাছে যান ইউজেনি।

আরও পড়ুন :: এবার পুতিনের ‘প্রেমিকার’ দিকে তোপ

গ্রেটাকে খুন করার পর একটি হোটেলের ঘরে তার মরদেহের সঙ্গে তিন রাত কাটিয়েছেন। তারপর গাড়িতে করে মস্কো থেকে প্রায় ৫০০ কিলোমিটার দূরে লিপেৎসক অঞ্চলে মরদেহ নিয়ে যান। ওই গাড়ির পিছনে মালপত্র রাখার জায়গায় একটি স্যুটকেসের মধ্যে রাখা ছিল গ্রেটার দেহ। সেই গাড়ি ওখানে ফেলে পালিয়ে চলে আসেন তিনি। প্রায় এক বছর ধরে লিপেৎসক অঞ্চলে সেই গাড়ির মধ্যেই স্যুটকেসের ভেতর গ্রেটার মরদেহ পড়েছিল।

প্রসঙ্গত, রাশিয়ার নামিদামি অনেক প্রতিষ্ঠানেরই মডেল হয়েছিলেন তিনি। ছিল ফ্যাশন জগতে তার খ্যাতি। তবে ২০২১ সালে ২৩ বছর বয়সী এই মডেল রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে পাগল বলেছিলেন। রাশিয়াসহ অন্যান্য দেশেও ব্যাপারটি তখন ভাইরাল হয়ে যায়। যদিও ভাইরাল হওয়ার আরও একটি কারণ ছিল। সেই কারণটি হচ্ছে তিনি পুতিনকে পাগল বলার কিছুদিন পরেই নিখোঁজ হয়ে যান। তাকে কোথাও আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না।

গ্রেটা মডেলিংয়ের পাশপাশি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নানা ধরনের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের তথ্য তুলে ধরতেন। এমনকি দেশের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কোনো কর্মকাণ্ড পছন্দ না হলেও তিনি তা নিয়ে যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে পোস্ট করতেন। তাই গ্রেটার মৃত্যুর এমন খবরে তার ভক্তরা সামাজিক মাধ্যমগুলোতে সরব রয়েছেন। প্রশ্ন তুলেছেন আদৌ কি গ্রেটাকে তার সাবেক প্রেমিক খুন করেছে? নাকি এর পেছনে রয়েছে অন্য কোনো রহস্য!

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button