রাজ্য

“কিছু করুন নয়তো চুপ থাকুন” রাজ্যপালকে আক্রমণ বিজেপি মুখপাত্রের

রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে রাজ্যের সব বিষয়ে ট্যুইটারে কথা বলতে দেখা গেছে। তিনি যে কোনও বিষয়ে সোচ্চার, সেটা কারও বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগ্রে দেওয়া হোক না কেন।

এবার এই নিয়ে রাজ্যপালকে আক্রমণ করলেন বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য। রাজ্যপালকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, “এখন ট্যুইট করে কাজ হবে না। এখন হয় কিছু করুন নয়তো চুপ থাকুন।”

রাজ্যপালকে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে সোচ্চার হতে দেখা গেছে। ট্যুইটারে অনেক লিখেছেন। এমনকি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে হাত মেলাতেও দেখা গেছে তাঁকে এবং মমতা বারবার ট্যাগিং এবং ট্যুইট থেকে বিরক্ত হওয়ায় রাজ্যপালকে ব্লক করেছিলেন।

যদিও রাজ্য বিজেপির একাংশ বলেছে, রাজ্যপালের ট্যুইট রাজ্যের কোনও উপকারে আসেনি। এ কারণে মানুষ বাংলার রাজ্যপালের আর কোনও বক্তব্য শুনতে চায় না। তারা রাজ্যপালের ট্যুইট দেখতে চায় না।

আরও পড়ুন: ঝাড়গ্রামের এবিএস কলেজে বিশেষ কৃতী সম্মাননা

মানুষ চায় সে কিছু করুক। রাজ্যপাল বারবার বলেছেন রাজ্যে আইনের কোনও নিয়ম নেই। রাজ্য সরকার নিয়ম মানছে না। এ কথা শুনে মানুষ ক্লান্ত। তবে সে কিছু করতে পারে। সে সেটা করছে না। তিনি সংবিধানের রক্ষক।

শমীকের এই বক্তব্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ বিরোধীরা প্রায়ই বলে যে রাজ্যপাল বিজেপির হয়ে কাজ করেন। তাকে সবসময় বিজেপির পক্ষে সোচ্চার দেখা যায়। তিনি রাজ্যের ডি ফ্যাক্টো বিজেপি নেতা হিসাবে কাজ করেছিলেন।

এমনকি বিজেপি নেতাদেরও কোনও না কোনও বিষয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করতে দেখা যায়। শুভেন্দু অধিকারী, দিলীপ ঘোষ এবং সুকান্ত মজুমদারকে মাঝে মাঝে রাজভবনে দেখা যায়।

রাজ্যের বহু বিষয়ে রাজ্যপালের কাছে অভিযোগ করেন তারা। কিন্তু, হঠাত্‍ এই মন্তব্য কেন করলেন শমীক? আলোচনা বিভিন্ন মহলে।

আরও পড়ুন ::

Back to top button