আন্তর্জাতিক

ভূগর্ভস্থ পার্কিং লটে ঘূর্ণিঝড়ে আটকা পড়া ৭ জনের লাশ

দক্ষিণ কোরিয়ায় শক্তিশালী টাইফুনের আঘাতে মৃত্যু বেড়ে ১০ জনে পৌঁছেছে। নিহতদের মধ্যে সাতজনই দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের বন্দরশহর পোহাংয়ের একটি অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সের ভূগর্ভস্থ পার্কিং লটে আটকা পড়েছিলেন।

স্থানীয় বার্তা সংস্থা ইয়নহাপের বরাত দিয়ে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, এ ঘটনায় এখনো দুজন নিখোঁজ রয়েছেন। এ ছাড়া পোহাংয়ের ওই পার্কিং লট থেকে আটকে পড়া আরও দুজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

সেন্ট্রাল ডিজাস্টার অ্যান্ড সেফটি কাউন্টারমিউজার্স হেডকোয়ার্টার্স (সিডিএসসিএইচ) এক বিবৃতিতে বলেছে, গত সোম ও মঙ্গলবার বয়ে যাওয়া ‌‘হিন্নামোর’ নামের এ টাইফুনের কারণে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের সড়ক ও ভবনগুলো বন্যায় প্লাবিত হয়েছে। সৃষ্টি হয়েছে ভূমিধসের।

টাইফুনের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পোহাং। ধারণা করা হচ্ছে, যে সাতজন ব্যক্তি নিহত হয়েছেন, তারা নিজেদের গাড়ি সরাতে গিয়ে ভূগর্ভস্থ হয়ে পড়েছিলেন।

সম্প্রতি টাইফুনের কারণে প্রায় পাঁচ হাজার লোক বাড়িঘর ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে। এতে প্রায় ১২ হাজার বাড়িঘর ধ্বংস হয়েছে। এ ছাড়া প্রায় ৯০ হাজার বাড়িঘর বিদ্যুবিহীন হয়ে পড়েছিল। তবে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে তারা দ্রুত বিদ্যুৎ সরবরাহগুলো ঠিক করেছেন।

টাইফুন আঘাত হানার আগে দক্ষিণ কোরিয়ায় ৬০০-এর বেশি স্কুল বন্ধ এবং স্থানীয় এয়ারলাইন্সের ২৫০টি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এর আগে গত আগস্টে রাজধানী সিউলে সৃষ্ট বন্যায় ১৪ জন নিহত হয়।

আরও পড়ুন ::

Back to top button