রাজ্য

“সীমান্ত রক্ষায় শুধু কেন্দ্র নয় , রাজ্যের ভূমিকাও থাকা চাই’’ , বৈঠকে সাফ জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

“সীমান্ত রক্ষায় শুধু কেন্দ্র নয় , রাজ্যের ভূমিকাও থাকা চাই’’ , বৈঠকে সাফ জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

ইস্টার্ন জোনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের বৈঠকে যোগ দিতে রাজ্য সফরে এসেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Union Home Minister)। ইস্টার্ন জোনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের বৈঠকে সীমান্ত নিরাপত্তার বিষয়ের উপরেই বেশি জোর দিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)। বৈঠকে যোগ দিয়েছেন বিহারের উপমুখ্যদমন্ত্রী তথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তেজস্বী যাদব (Tejashwi Yadav) , ঝাড়খণ্ডের মুখ্য্মন্ত্রী হেমন্ত সোরেন (Hemant Soren)। ওড়িশা এবং বিহারের মুখ্যমন্ত্রী বৈঠকে যোগ দেননি। তবে রয়েছেন ওই দুই রাজ্যের অন্যান্য প্রতিনিধিরা।

নবান্ন সূত্রে খবর, সীমান্তে চোরাচালান, অনুপ্রবেশ ইত্যাদি রুখতে বিএসএফের (BSF) ভূমিকা নিয়েও মত বিনিময় হবে। রাজ্যের আন্তর্জাতিক সীমান্তে নিরাপত্তা নিয়েই এই বৈঠক। বিএসএফের (BSF) টহলদারি এলাকা ১৫ কিমি থেকে বাড়িয়ে ৫০ কিলোমিটার করা হয়েছে। এই বিষয়টিও আলোচনায় রয়েছে। সেই আশাকে বাস্তবায়িত করে অমিত শাহ (Amit Shah) ।

এদিন অমিত শাহ (Amit Shah) বৈঠকে বলেন, “সীমান্ত নিরাপত্তার দায়িত্ব যতটা বিএসএফের, ঠিক ততটা রাজ্যেরও। কেন্দ্রীয় সরকার সীমান্ত নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে ভাবছে। আগের সরকারের খামতি ছিল। আমরা তা অনেকটা পূরণ করেছি। আরও উন্নয়নের জন্য এগোচ্ছি।” রাজনাথ সিং (Rajnath Singh) কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী থাকার সময় নবান্ন সভাঘরে আগে এই বৈঠক বসেছিল।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় ভাল্লা, কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রধানরা এই বৈঠকে রয়েছেন। সদস্য রাজ্যগুলির সচিব পর্যায়ের প্রতিনিধিদলেরও অংশ নিয়েছেন এই বৈঠকে। পশ্চিমবঙ্গ সহ পূর্ব ভারতের চার রাজ্য বিহার, ওড়িশা ও ঝাড়খণ্ড এই কাউন্সিলের সদস্য। প্রসঙ্গত , প্রতি বছর মূলত প্রতিবেশী রাজ্যগুলির মধ্যে আভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা ও পরিকাঠামোগত ক্ষেত্রে যৌথ উদ্যোগ আলোচনা ও সমাধানের পথ খুঁজতেই সদস্য রাজ্যগুলিতে পর্যায়ক্রমিক এই কাউন্সিলের বৈঠক বসে।

আরও পড়ুন ::

Back to top button