আন্তর্জাতিক

তুষারঝড়ে লন্ডভন্ড যুক্তরাষ্ট্র, তাপমাত্রা নামলো মাইনাস ৫১ ডিগ্রি

ICE Storm in North America তুষারঝড়ে লন্ডভন্ড যুক্তরাষ্ট্র, তাপমাত্রা নামলো মাইনাস ৫১ ডিগ্রি - West Bengal News 24

শক্তিশালী শীতকালীন তুষারঝড়ে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার (২৩ ডিসেম্বর) এই ঝড় ‘বোম্ব সাইক্লোন’-এ রূপ নেওয়ার পর বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন ১০ লাখের বেশি মানুষ। বন্ধ করে দেওয়া হয় মহাসড়ক, বাতিল হয়েছে হাজার হাজার ফ্লাইট। দেশটিতে শীত এতটাই জেঁকে বসেছে যে, ফুটন্ত পানি বাতাসে ছুড়ে দিলে সঙ্গে সঙ্গে বরফে পরিণত হচ্ছে।

ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস (এনডব্লিউএস) জানিয়েছে, ভয়ংকর তুষারঝড়ের কারণে যুক্তরাষ্ট্রে ২০ কোটির বেশি মানুষ সতর্কতার আওতায় রয়েছেন। দেশটির কোথাও কোথাও তাপমাত্রা হিমাঙ্কের নিচে ৪৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে (-৫৫ ডিগ্রি ফারেনহাইট) পৌঁছেছে।

হ্যামবুগের্র বাসিন্দা ৩৯ বছর বয়সী জেনিফার অরল্যান্ডো বলেন, রাস্তায় কিছুই দেখা যাচ্ছে না। আমরা কোথাও যাচ্ছি না। তিনি জানান, মহাসড়কে একটি গাড়ি চাকা পিছলে বিদ্যুৎলাইনে ধাক্কা দেওয়ার পর তার বাসা চার ঘণ্টা বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন ছিল।

পাওয়ার আউটেজ ডট ইউএসের তথ্যমতে, তীব্র শীতের মধ্যে বিদ্যুৎসংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন লাখ লাখ গ্রাহক।

টেক্সাসের এল পাসোতে মেক্সিকো সীমান্ত পেরিয়ে আসা অবৈধ অভিবাসীরা উষ্ণ আশ্রয়ের সন্ধানে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। রোজা ফ্যালকন নামে এক শিক্ষক ও স্বেচ্ছাসেবক জানিয়েছেন, অভিবাসীদের অনেকেই চার্চ, স্কুল ও নাগরিক কেন্দ্রগুলোতে ভিড় করছেন।

তবে মাইনাস ১৫ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রার মধ্যেও কেউ কেউ বাইরেই থাকছেন। কারণ তারা মার্কিন অভিবাসন কর্তৃপক্ষের নজরে পড়ার ভয় করছেন।

ভ্রমণ বিঘ্নিত
নর্থ ও সাউথ ডাকোটা, ওকলাহোমা, আইওয়াসহ অন্যান্য স্থানের পরিবহন বিভাগগুলো প্রায় শূন্য দৃশ্যমানতা, বরফে ঢাকা রাস্তা ও তুষারঝড়ের খবর দিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বাসিন্দাদের বাড়িতে থাকার জন্য জোরালো আহ্বান জানিয়েছে তারা।

ওকলাহোমায় গত বৃহস্পতিবার সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তত দুজনের মৃত্যু হয়েছে। কেন্টাকির গভর্নর অ্যান্ডি বেসিয়ার তার রাজ্যে তিনটি প্রাণহানির তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ওহাইওতে ৫০টি গাড়ির মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত একজনের মৃত্যু হয়েছে। মিশিগানে নয়টি ট্র্যাক্টর ট্রেলারের দুর্ঘটনায় সড়ক যোগাযোগ বিঘ্নিত হয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে চালকদের রাস্তায় না উঠতে পরামর্শ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। নিউইয়র্কের গভর্নর ক্যাথি হচুল এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেছেন, রাস্তাগুলো আইস স্কেটিং রিংকের মতো হতে চলেছে। এর ওপর গাড়ি চলতে পারবে না।

ফ্লাইট ট্র্যাকিং ওয়েবসাইট ফ্লাইটঅ্যাওয়ারের হিসাবে, গত শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে প্রায় পাঁচ হাজার ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে এবং আরও ৭ হাজার ৬০০টি বিলম্বিত হয়েছে।

এনডব্লিউএসের গ্লাসগো শাখার প্রধান পূর্বাভাসদাতা রিচ মালিয়াওকো বলেছেন, সেখানে বাতাসের তাপমাত্রা রাতারাতি মাইনাস ৬০ ডিগ্রি ফারেনহাইটে (মাইনাস ৫১ ডিগ্রি সেলসিয়াস প্রায়) নেমে গিয়েছিল। এই আবহাওয়া অত্যন্ত বিপজ্জনক বলে সতর্ক করেছেন তিনি।

মালিয়াওকো বলেছেন, এ ধরনের ঠান্ডা বাতাসে আপনি যদি গরম কাপড় না পরেন, তাহলে অনাবৃত ত্বক পাঁচ মিনিটেরও কম সময়ে ফ্রস্টবাইটে আক্রান্ত হতে পারে।

ফ্রস্টবাইটে আক্রান্ত হলে শরীরে উষ্ণ রক্তপ্রবাহের অভাবে ত্বকের টিস্যু জমে গিয়ে ফেটে যেতে পারে এবং কিছু ক্ষেত্রে অঙ্গহানি পর্যন্ত হতে পারে।

মন্টানার আবহাওয়া এতটাই হিমশীতল হয়ে পড়েছে যে, গরম পানি বাতাসে ছুড়ে দিলে সঙ্গেই তা বরফে পরিণত হচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ ঘটনা ভিডিও শেয়ার করেছে এনডব্লিউএস মিসৌলা।

সূত্র: এএফপি, এনডিটিভি

আরও পড়ুন ::

Back to top button