১০ বছর পর যে বিষয়গুলো নিয়ে আফসোস করবেন আপনিও!


১০ বছর পর যে বিষয়গুলো নিয়ে আফসোস করবেন আপনিও!

আমরা প্রত্যেকেই নিজের কাজে অনেক বেশি ব্যস্ত। জীবনটাকে গুছিয়ে নিয়ে আসতে আপ্রাণ চেষ্টা করছেন অনেকেই। আবার অনেকে শুধুমাত্র নিজের মতো করে জীবনটাকে উপভোগ করছেন। সবাই যার যার মতোই রয়েছেন। কেউ কেউ ভাবছেন ভবিষ্যতে কী হবে আবার কেউ ভাবছেন না।

কিন্তু একটিবারও কি ভাবা উচিৎ না আজ থেকে ১০ বছর পর কী হবে? আপনি কোন অবস্থানে থাকবেন? অনেকেই ভাবেন না। কিন্তু আজ থকে ১০ বছর পর অনেকেই কিছু বিষয় নিয়ে অবশ্যই আফসোস করতে থাকবেন। জানতে চান কী সেই বিষয়গুলো? চলুন তবে দেখে নেয়া যাক আজকের ফিচারটি।

ঠিকমতো পড়ালেখা না করার আফসোস
আজকে যারা পড়ালেখা করছেন, তারা কেউই ভাবছেন না ১০ বছর পর তারা কোথায় থাকবেন। আজকে নিজের জীবনটাকে উপভোগ করতে যেয়ে পড়ালেখায় একেবারেই মনোযোগ দিচ্ছেন না যারা তারা ১০ টি বছর পর জীবনের বাস্তবতার সাথে লড়তে লড়তে ঠিকই আফসোস করবেন, ‘আর একটু ভালো করে পড়ালেখা করতাম’।

ধূমপান ও মদ্যপান করার আফসোস
অনেকেই শখ করে এবং মনের ইচ্ছায় ধূমপান ও মদ্যপান করেন। অনেকে ভাবেন এইগুলো স্মার্টনেসের লক্ষণ। যদিও এটি ভুল ধারণা এবং এতে করে নিজেরই অনেক বেশি ক্ষতি করছেন অনেকে তারপরও এখন তারা কিছুই ভাববেন না। ১০ বছর পর নিজের অসুস্থ দেহটাকে টানতে যেয়ে মনে মনে আফসোস ঠিকই করবেন, ‘ধূমপান না করলে আজ এই অবস্থা হতো না’।

ভালোবাসার মানুষটিকে ধরে রাখতে না পারার আফসোস
সামান্য ভুল বোঝাবোঝি, কিছুটা ছাড় দেয়ার সমস্যা এবং মানিয়ে না নেয়ার মনোভাবের দরুন অনেকেই পছন্দের মানুষটি চলে যেতে দিয়ে থাকেন। ভালোবাসার মূল্য না বুঝেও অনেকে ছুড়ে ফেলেন ভালোবাসার মানুষটিকে। কিন্তু ১০ টি বছর পর যখন ভালোবাসা খুঁজতে থাকবেন সকলের কাছে কিংবা মনে করবেন সেই ফেলে আসা মানুষটিকে তখন আফসোস করবেন, ‘আর একটু চেষ্টা করে দেখতে পারতাম’।


পরিবারকে সময় না দেয়ার আফসোস
কাজের জন্য কিংবা নিজের স্বার্থে অনেকেই নিজের পরিবারকে একেবারেই সময় দিতে পারেন না। কিন্তু এতে ধীরে ধীরে পরিবারের মানুষগুলো থেকে অনেকটা দূরে সরে যান অনেকেই। কেউ ভাবেনই না ১০ বছর পর কি হবে। যখন দেখবেন পরিবারের মানুষজনের কাছে ১০ বছর পর আপনার জন্য সময় নেই কিংবা যখন দেখবেন পরিবারের কিছু মানুষ হারিয়ে গিয়েছেন তখন মনে মনে আফসোস করবেন, ‘আর একটু সময় দিতাম, একটু কথা বলতে পারতাম সকলের সাথে’।

আলসেমি করে সময় নষ্ট করার আফসোস
অনেকেই আলসেমি করে কাজ করতে চান না সেটি যে কাজই হোক। কিংবা আলসেমি করে অনেকেই অবহেলা করে সময় নষ্ট করে থাকেন। এই বিষয়টি নিয়ে কেউই ভাবেন না। কিন্তু ১০ বছর পর এই জিনিসটি নিয়েই আফসোসের সীমা থাকবে না আপনার। ভাববেন, ‘সময়টাকে একটু মূল্য দিতাম, তাহলে আজকে অনেক সফল হতে পারতাম’।

সময় থাকতে ভ্রমণে না বেরুনোর আফসোস
কাজের ব্যস্ততা, নানা চিন্তা ভাবনা করে অনেকেই নিজের পছন্দের নানা স্থানে ঘুরে বেড়ানোর সুযোগ হেলায় হারিয়ে ফেলেন। কিন্তু ১০ বছর পর যখন হাতে সময় থাকবে না, কিংবা শরীর সায় দেবে না ঘুরতে যাওয়ার তখন ঠিকই মনের মধ্যে আফসোসের সুর বাজবে, ‘তখনই ঘুরে আসতে পারতাম’।

নিজের মনের কথা না শোনার আফসোস
পরিবারের চাপে কিংবা মানুষের কথায় কান দিতে যেয়ে অনেকেই নিজের সত্ত্বাকে বিসর্জন দিয়ে মনে কথাকে দাবিয়ে রাখেন। অনেকে ভাবেন নিজে কষ্ট পেলেও অন্যরা কষ্ট পাবেন না। কিন্তু ১০ বছর পর যখন দেখবেন শত করেও মানুষের মন জয় করতে পারছেন না উল্টো নিজের কষ্টটা বেড়েই চলেছে তখন ঠিকই আফসোস করবেন, ‘কেন যে নিজের কথা শুনলাম না’।

Recommended For You