প্রযুক্তি

যেভাবে সুরক্ষিত রাখবেন আপনার গুগল ড্রাইভের তথ্য

এখন অধিকাংশ মানুষই গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করছেন। তাই জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ক্লাউড স্টোরেজ। এতে করাপ্ট হয়ে যাওয়ার চিন্তা নেই। এর ফলে কোনো দিনই তথ্য নষ্ট হবে না। অন্যদিকে বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে ব্যবহার করার সুবিধা।

তাই অনেকেই এখন স্টোরেজ হিসেবে পছন্দ করছেন ক্লাউড স্টোরেজ। এর মধ্যে বেশিরভাগের প্রথম পছন্দ গুগল ড্রাইভ সাবক্রিপশন ফি বেশি নয়, তেমনি নির্ভরযোগ্য। তবে গুগল ড্রাইভে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য কীভাবে আরও সুরক্ষিত রাখা সম্ভব তা জেনে নিন।

গুগল ড্রাইভের তথ্য সুরক্ষিত রাখার জন্য সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এনক্রিপশন। তথ্যকে যদি এনক্রিপশন করে রাখা যায় তাহলে তথ্য চুরি হওয়ার সম্ভাবনা অনেক কম হয়।

আরও পড়ুন : ফোনের ব্যাটারি দ্রুত শেষ করার জন্য এই অ্যাপগুলোই যথেষ্ট, না ব্যবহার করলে তাড়াতাড়ি ডিলিট করুন

অ্যাক্রোব্যাটের মাধ্যমে এনক্রিপ্ট:
যদি কেউ পেইড অ্যাক্রোব্যাট ব্যবহারকারী হন তাহলে সেই ব্যবহারকারী পিডিএফ ফাইল এনক্রিপ্ট করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে প্রথমে ফাইল অপশনে যেতে হবে, তারপর প্রোটেক্ট ইউজিং পাসওয়ার্ডে ক্লিক করতে হবে এবং পাসওয়ার্ড সেট করতে হবে।

মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের মাধ্যমে এনক্রিপশন:
যদি কোনো ব্যবহারকারীর পার্সোনাল কম্পিউটারে মাইক্রোসফট অফিস ইনস্টল করা থাকে তাহলে খুব সহজেই কোনো ডকুমেন্ট এনক্রিপশন করা সম্ভব। কারণ মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে বিল্ট ইন এনক্রিপশন ফিচার থাকে।

এ জন্য প্রথমে যে ডকুমেন্ট এনক্রিপ্ট করা হবে, তার ফাইলে ক্লিক করতে হবে। এরপর যেতে হবে প্রটেক্ট ডকুমেন্ট অ্যান্ড এনক্রিপ্ট উইথ পাসওয়ার্ডে, সেখানে ক্লিক করতে হবে। তারপর নিজের পছন্দ মতো পাসওয়ার্ড সেট করতে হবে। তারপর তা গুগল ড্রাইভে আপলোড করতে হবে। তবে এক্ষেত্রে পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে কোনো ভাবেই তা রিকভার করা সম্ভব হবে না।

আরও পড়ুন : দীর্ঘক্ষণ হেডফোন ব্যবহারে যেসব ক্ষতি হতে পারে

গুগল ডক্স বা স্লাইডের ক্ষেত্রে কোনও পাসওয়ার্ড দেয়ার ব্যবস্থা নেই। কিন্তু গুগল নিজে থেকে তার পুরো ড্রাইভটি নিরাপদ রাখে। সেক্ষেত্রে গুগল ড্রাইভ আরও নিরাপদ রাখার জন্য টু ফ্যাক্টর অথেন্টিকেশন অথবা হার্ডওয়্যার ‘সিকিউরিটি কী’ ব্যবহার করা যেতে পারে।

যদি কোনো ব্যবহারকারীর মাইক্রোসফট অফিস বা এই জাতীয় কোনো সফটওয়্যার না থাকে তাহলে তাদের ক্ষেত্রে বক্সক্রিপ্টর ব্যবহার করা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে গুগল ড্রাইভের সঙ্গে বক্সক্রিপ্টরটির সেটিংস করতে হবে।

আরও পড়ুন ::

Back to top button