বিচিত্রতা

এই অদ্ভুত ভাইরাল ছবির পেছনের কাহিনী জানেন কী!

অদ্ভুতভাবে মাস্ক পরে আছে মায়ের কোলে বসে আছে একটি শিশু। পূর্ণ বয়স্ক মানুষের মাস্ক পরায় তার পুরো মুখমণ্ডলই ঢেকে আছে মাস্কে। তাই দেখার সুবিধার্তে চোখ বরাবর মাস্কটিতে দুটি ফুটোও করে দেয়া হয়েছে। আর সেখান দিয়েই চারদিকে দেখছে শিশুটি। এয়ার নিউজিল্যান্ডের একটি বিমানে এমনই অদ্ভুত ছবিটি তুলেছেন জ্যান্ডার অপারম্যান নামের এক যাত্রী। সেই ছবি এখন ইন্টারনেটে ভাইরাল। শুরু হয়েছে বিতর্কও।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড জানিয়েছে, গত ১লা জুলাই অকল্যান্ড থেকে ওয়েলিংটন যাওয়ার ফ্লাইটেই এই ছবিটি তোলা হয়। ছবি তোলা জ্যান্ডার অপারম্যান বলেন, শিশুটি বেশ মজায় ছিল বলেই মনে হয়েছে। সে লাফাচ্ছিল আর হাসছিল। বিমান থেকে নামার অপেক্ষাকে কিছুটা মজাদার করে তুলেছিল সে।

আরও পড়ুন :: সেলফি তুলতে গিয়ে পড়লেন আগ্নেয়গিরির গর্তে

তার ওই ছবি অনলাইনে পোস্ট করার পর রীতিমতো ঝড় উঠেছে সেখানে। অনেক নেট ব্যবহারকারী এই ছবিকে মজার হিসেবে নিলেও অনেকেই একে ‘শিশু নির্যাতন’ বলেও আখ্যা দিয়েছেন।

নেটিজেনদের একজন লিখেছেন, আমার সামনে যদি এই ঘটনা ঘটতো তাহলে আমি তার মুখ থেকে মাস্কটি খুলে দিতাম। আরেকজন লিখেন, এভাবে মাস্ক পরিয়ে দেয়া বিপজ্জনক। কারণ শিশুটির শ্বাস নেয়ার কোনো জায়গা ছিল না। অনেকেই আবার প্রশ্ন তুলেছেন, এভাবে মাস্ক পরা কোভিডের বিরুদ্ধে কতখানি কার্যকর।

যদিও নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডকে অপারম্যান জানিয়েছেন, মাস্কটি মোটেও শক্ত করে বাঁধা ছিল না। শিশুটি নিজেও আনন্দে ছিল। তার মা হাতের কাছে যা ছিল তা দিয়েই শিশুটিকে সুরক্ষিত করার চেষ্টা করছিলেন।

আরও পড়ুন ::

Back to top button