আন্তর্জাতিক

৬০ বছরের ‘স্পাইডার ম্যান’, জন্মদিনে ৪৮ তলায় উঠে তাক লাগিয়ে দিলেন

ফ্রান্সে স্পাইডার ম্যান নামেই পরিচিত তিনি। ছবি: টুইটার

সিনেমার স্পাইডার ম্যানকে বাস্তবে দেখলেন প্যারিসের অধিবাসীরা। তিনি মূলত পর্বতারোহী। কোনো নিরাপত্তা সরঞ্জাম ছাড়াই ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি ৪৮ তলা ভবন বেয়ে ওপরে উঠে ৬০ তম জন্মদিন উদ্‌যাপন করেছেন!

প্যারিসের বাণিজ্যিক শহর ডিফেন্সের ট্যুর টোটাল এনার্জি ভবনের চূড়ায় খালি হাতে উঠেছেন অ্যালাইন রবার্ট। কোনো দড়ি বা বিশেষ জুতা ব্যবহার করেননি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে তিনি বলেন, ‘আমি মানুষকে এই বার্তা দিতে চাই যে ৬০ বছর বয়স কোনো বিষয় না। আপনি এ বয়সেও খেলাধুলা করতে পারেন, সক্রিয় থাকে পারেন, দুর্দান্ত সব কাজ করতে পারেন।’

সারা বিশ্বে বহু উঁচু ভবনে উঠেছে রবার্ট। ছবি: টুইটার

অবশ্য টাওয়ারের চূড়ায় পৌঁছানোর পর রবার্টকে আটক করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

অ্যালাইন রবার্ট অবশ্য এর আগে বহুবার ট্যুর টোটাল এনার্জি টাওয়ারে উঠেছে। কিন্তু এইবারই প্রথম চূড়ায় পৌঁছাতে তাঁর সময় লেগেছে মাত্র ৬০ মিনিট। ডিফেন্স ৯২ নিউজ ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনে এমনটিই জানানো হয়েছে।

টাওয়ারের চূড়ায় ওঠার পর রবার্ট বলেন, ‘আমি বেশ কয়েক বছর আগে নিজের কাছে অঙ্গীকার করেছিলাম, যখন আমি ৬০ বছর বয়সে পৌঁছাব, আবার এই টাওয়ারে উঠব। কারণ ৬০ হলো ফ্রান্সে অবসরের বয়স, কিন্তু আমি ভেবেছিলাম এটাই একটা চমৎকার সময়।’

কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া এতো উঁচু ভবনের ওপর কারণে রবার্টকে আটক করা হয়েছে। ছবি: টুইটার

রয়টার্সের প্রতিবেদন অনুসারে, এই সুউচ্চ ভবনের আরোহণের লক্ষ্য ছিল বৈশ্বিক উষ্ণায়ন সম্পর্কে সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি করা।

অ্যালাইন রবার্ট বিশ্বব্যাপী উঁচু উঁচু ভবনে আরোহণের জন্য বিখ্যাত। তাঁর সাহসী কৃতিত্বের মধ্যে রয়েছে দুবাইয়ের বুর্জ খলিফার শীর্ষে পৌঁছানো। এটিই এখন বিশ্বে সবচেয়ে উঁচু ভবন।

রবার্ট সাধারণত কোনো পূর্ব ঘোষণা বা কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই এমন স্টান্ট করেন। এ জন্য বেশ কয়েকবার আটকও হয়েছেন।

আরও পড়ুন ::

Back to top button