রাজ্য

“ইঞ্জিনিয়ার মেয়ে শ্বেতা সম্পূর্ণ নির্দোষ”, দাবি মেধাবী শ্বেতা চক্রবর্তীর বাবার

ওয়েস্ট বেঙ্গল নিউজ ২৪

Sweta Chakraborty : “ইঞ্জিনিয়ার মেয়ে শ্বেতা সম্পূর্ণ নির্দোষ”, দাবি মেধাবী শ্বেতা চক্রবর্তীর বাবার - West Bengal News 24

ছোট থেকেই মেধাবী। পড়াশোনায় ভাল ছাত্রী হিসাবেই এলাকায় পরিচিত ছিলেন শ্বেতা। পাশ করেছেন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংও। সেই সূত্রেই কামারহাটি পুরসভায় ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে চাকরি। দাবি শ্বেতা চক্রবর্তীর বাবার।

শ্বেতা চক্রবর্তী বাবা অরুণ (Arun Chakrabarty) বলেন , “অয়ন নিজের কোম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর করেছিল শ্বেতাকে (Sweta Chakrabarty)। শ্বেতার ছবি দিয়েই ক্যালেন্ডার, ডায়েরি তৈরি করেছিল।” তাঁর কথায়, ওই কাজের বিনিময়েই পারিশ্রমিক পেয়েছিলেন তাঁর মেয়ে।

তাঁর বক্তব্য, “সঠিক তদন্ত হোক। মহামান্য আদালত যা নির্দেশ দেবেন তাই করব। শ্বেতা যদি কোনও অন্যায় করে থাকে , যদি অপরাধী হয় , তাহলে অপরাধের যা শাস্তি হবে মাথা পেতে নেবে। ও এরকম করতেই পারে না, আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস।” অরুণ (Arun Chakrabarty) জানিয়েছেন, যদি তাঁর মেয়েকে তলব করা হয়, তাহলে সে নিশ্চই যাবে এবং তদন্তে সহযোগিতা করবে।

শ্বেতার দাদা জানান, আপাতত, তাঁর বোন আইনজীবীর পরামর্শ নিয়েছেন। শ্বেতার আইনজীবী, শ্বেতাকে (Sweta Chakrabarty) সাংবাদিকদের সামনে কোনও কথা না বলার পরামর্শ দিয়েছেন। সেই কারণেই আপাতত হয়ত শ্বেতা সর্বসমক্ষে আসছেন না। এর পাশাপাশি, শ্বেতার দাদার এ-ও দাবি, যদি তাঁর বোন দোষ করে থাকেন, তার বিচার আদালত করবে।

নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডে অভিযুক্ত প্রোমোটার অয়ন শীলের (Ayan Shil) সঙ্গে তাঁর বন্ধুত্বের কথা সামনে আসার পর থেকেই তাঁর চাকরি নিয়েও নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। প্রসঙ্গত , অয়নের ফ্ল্যাট থেকে রাজ্যের পুরসভাগুলির নিয়োগের আসল ওএমআর শিট মিলেছিল। তদন্তকারীরা মনে করছেন, পুরসভার চাকরির ক্ষেত্রেও দুর্নীতি হওয়া অদ্ভুত কিছু নয়।

আরও পড়ুন ::

Back to top button