বিনোদন

ধর্ম নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য, ফেঁসে গেলেন বলিউডের ৩ নারী তারকা

খ্রিস্টধর্ম নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের রোষানলে পড়েছেন বলিউড অভিনেত্রী রাভিনা ট্যান্ডন, পরিচালক ও কোরিওগ্রাফার ফারহা খান এবং কৌতুরশিল্পী ভারতী সিং। ভারতের পাঞ্জাবের বিভিন্ন প্রান্তে রাবিনা, ফারহা ও ভারতীর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছেন খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীরা।

জিনিউজের খবরে বলা হয়, খ্রিস্টধর্ম নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করায় পাঞ্জাবের জলন্ধর, গুরুদাসপুরসহ বিভিন্ন প্রান্তে বিক্ষোভ চলছে। ইতিমধ্যে পাঞ্জাব পুলিশের কাছে রাভিনা ট্যান্ডন, ফারহা খান ও ভারতী সিংয়ের বিরুদ্ধে তিনটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

খ্রিস্ট ধর্ম নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করায় ক্ষমা চেয়েছেন রাভিনা ট্যান্ডন। তিনি বলেন, ‘আমি এমন কোনো শব্দ ব্যবহার করিনি যাতে নির্দিষ্ট কোনো ধর্মীয় সম্প্রদায়ের ভাবাবেগে আঘাত লাগে। আমাদের তিনজনের (ফারহা, ভারতী ও রাবিনা) কারোর ভাবাবেগে আঘাত করার কোনো উদ্দেশ্যই ছিল না। তা সত্ত্বেও যদি কারোর ভাবাবেগে আজান্তে আঘাত করে থাকি তাহলে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।’’

ক্ষমা চাওয়ার পাশাপাশি তিনি টিভি শোতে ঠিক কী বলেছিলেন তার একটি ভিডিও লিঙ্কও দেন রাভিনা, যদিও সেই ভিডিওটি টুইটার কর্তৃপক্ষ মুছে দিয়েছে।

এ ঘটনায় বলিউডের তারকা পরিচালক, প্রযোজক ও কোরিওগ্রাফার ফারহা খানও ক্ষমা চেয়েঝেন। টুইটারে তিনি লেখেন, ‘কোনো নির্দিষ্ট সম্প্রদায়কে আঘাত করার উদ্দেশ্যই তার বা বাকি দুজনের ছিল না।’

গত বুধবার সোনু জাফর নামে এক ব্যক্তি রাভিনা, ফারহা ও ভারতীর বিরুদ্ধে পাঞ্জাব পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন। ক্রিস্টমাসের সময় টিভি শো-তে খ্রিস্টানদের ভাবাবেগে আঘাত করা হয়েছে বলে অভিযোগ দায়ের করেন আজনালা ব্লকের খ্রিস্টান ফ্রন্টের প্রেসিডেন্ট সোনু।

আরও পড়ুন ::

Back to top button