ঝাড়গ্রাম

দলের দায়িত্ব পেয়েই ঝাড়গ্রামে খড়গপুরের দেবাশিস

স্বপ্নীল মজুমদার

ঝাড়গ্রাম: লক্ষ্য বিধানসভা ভোট! ঝাড়গ্রাম জেলায় শাসকদলের সাংগঠনিক দায়িত্ব পেলেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক দেবাশিস চৌধুরী। দেবাশিস রেল শহর খড়্গপুরের নেতা।

গত সোমবার মেদিনীপুরে দলীয় জনসভা করতে এসেছিলেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওইদিনই দেবাশিসকে ঝাড়গ্রাম জেলায় দলীয় সংগঠন দেখভালের দায়িত্ব দেন মমতা। তৃণমূল সূত্রের খবর, দেবাশিসকে কার্যত পর্যবেক্ষকের সমতুল দায়িত্ব দিয়েছেন নেত্রী। তবে যেহেতু মমতা জেলা পর্যবেক্ষক পদটাই তুলে দিয়েছেন, সেই কারণে দেবাশিসকে পর্যবেক্ষক বলেননি তিনি। তবে জঙ্গলমহলের গুরুত্বপূর্ণ জেলা ঝাড়গ্রামের দায়িত্ব দেবাশিসকে দিয়েছেন।

আরও পড়ুন : ঝাড়গ্রামে জমি-বিবাদে যুবক খুন, অভিযুক্ত এনভিএফ কর্মী ফেরার

২০০৯-২০১২ সাল পর্যন্ত দেবাশিস অবিভক্ত পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার যুব তৃণমূলের সভাপতি ছিলেন। ওই সময় তৎকালীন ঝাড়গ্রাম মহকুমায় সংগঠনের কাজে বহুবার এসেছেন। নেতাই গণহত্যা সহ সিপিএমের বিরুদ্ধে নানা আন্দোলনে ওই সময় জঙ্গলমহলে প্রথম সারিতে তাঁকে দেখা গিয়েছিল। তৃণমূলের একাংশ বলছেন, ঝাড়গ্রামকে হাতের তালুর মত চেনার সুবাদে দেবাশিসকে দলীয় সংগঠন চাঙ্গা করার দায়িত্ব দিয়েছেন নেত্রী।

দায়িত্ব পাওয়ার পরে বুধবার ঝাড়গ্রাম জেলায় এসে দলীয় বৈঠক করলেন দেবাশিস। এদিন ঝাড়গ্রাম শহরের রূপছায়া মোড়ে দলীয় কার্যালয়ে দলের নেতাদের নিয়ে বৈঠক করেন তিনি। বৈঠকে ছিলেন জেলা তৃণমূলের কো-অর্ডিনেটর উজ্জ্বল দত্ত, জেলা সহ সভাপতি দুর্গেশ মল্লদেব, শহর তৃণমূলের সভাপতি প্রশান্ত রায়, জেলা তৃণমূলের মুখপাত্র সুব্রত সাহা, জেলা যুব সভাপতি শান্তনু ঘোষ, টিএমসিপি-র জেলা সভাপতি আর্য ঘোষ, রাজ্য যুব তৃণমূলের সহ সভাপতি দেবনাথ হাঁসদা প্রমুখ।

আরও পড়ুন : এসটি তালিকা ভুক্তি সহ ২৬ দফা দাবিতে ঝাড়গ্রাম ডিএম অফিসে কুড়মিদের অবস্থান বিক্ষোভ

এদিন বিকেলে জেলা পরিষদে যান দেবাশিস। সেখানে জেলা সভাধিপতি মাধবী বিশ্বাস ও দলের কর্মাধ্যক্ষদের সঙ্গেও বৈঠক করেন তিনি। এদিন ঝাড়গ্রামের লোধাশুলিতে কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে বিধায়ক চূড়ামণি মাহাতোর সঙ্গে অবস্থান বিক্ষোভেও যোগ দেন তিনি।

আরও পড়ুন ::

Back to top button