রাজনীতি

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পুলিশকে দলের দাস বানিয়েছেন : দিলীপ ঘোষ

Dilip Ghosh : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পুলিশকে দলের দাস বানিয়েছেন : দিলীপ ঘোষ - West Bengal News 24

নন্দীগ্রামে বিধানসভার বিরোধী দলের নেতা শুভেন্দু অধিকারীর অফিসে পুলিশের অভিযানের সময় পণ্য ভাংচুরের অভিযোগ নিয়ে রাজনীতি তীব্র হয়েছে। বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ বলেন, যে কাজ তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা করে আসছে, এখন পুলিশ তা করছে। তিনি বলেছিলেন যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পুলিশকে দলের দাস বানিয়েছেন এবং পুলিশ সদস্যরাও দাসত্ব করতে পিছপা হচ্ছে না।

তিনি বলেন, অতীতেও হেস্টিংসে বিজেপির অফিসে হামলা হয়েছে। এ ছাড়া আমাদের রাজ্যের সদর দফতরেও হামলা হয়েছে। রাজ্য জুড়ে অন্যান্য অফিসে হামলা নতুন নয়, তবে এখন পর্যন্ত সমস্ত হামলা তৃণমূল কংগ্রেসের লোকেরা করেছিল যেখানে এখন পুলিশকর্মীরা একই কাজ করতে শুরু করেছে। সত্য হল বাংলায় আইন-শৃঙ্খলা নেই।

রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় রবিবার রাজ্যের মুখ্য সচিব এইচ.কে. দ্বিবেদীর কাছ থেকে তাত্‍ক্ষণিক রিপোর্ট তলব করা হয়েছে। এ নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে বাংলার রাজনীতি। এ নিয়ে মমতা সরকারকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাচ্ছে বিজেপি।

সোমবার অর্জুন সিং, দিলীপ ঘোষকে নিয়ে এই মন্তব্য ফাঁস করে দিল সংবাদমাধ্যম। তিনি বলেন, ভারতীয় জনতা পার্টির রাজ্য ইউনিটের কমিটি সিং। যেকোনও ধরনের সমস্যা পার্টিকে ফোরামে নিতে হবে, পাবলিক ডোমেইনে নয়।

তিনি শুধুমাত্র মিডিয়া এবং কিছু লোকের দৃষ্টি আকর্ষণ করে তাদের দিকে টানছেন। এর একদিন আগে মহম্মদ সেলিম বলেছিলেন যে সিপিআই-এম এবং কংগ্রেস জোট বিজেপিকে হারাতে পারে।

এ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, সিপিএম এবং কংগ্রেস নির্বাচন করার জন্য লোক খুঁজছে। তার আগে বাংলার মানুষকে যথেষ্ট সুযোগ দিলেও তিনি রাজ্যকে ধিক্কার দেন। এ জন্য তার জনগণের কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত্‍।

এছাড়াও কালিয়াচকের এসএইচওর উপর হিন্দুর ইসলাম ধর্ম গ্রহণের জন্য কাজ করার অভিযোগ রয়েছে। এ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, মমতা প্রশাসনিক শাসন ব্যানার্জির তত্ত্বাবধানে ধর্মান্তরের দল চালাচ্ছেন। সেই লক্ষ্যে যে কোনও বাংলার কাছে হিন্দু শূন্য।

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button