রাজনীতিরাজ্য

জেপি নাড্ডার বঙ্গ সফরে বাধা কুয়াশার, বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতির কর্মসূচিতে কাটছাঁট

ওয়েস্ট বেঙ্গল নিউজ ২৪

J. P. Nadda : জেপি নাড্ডার বঙ্গ সফরে বাধা কুয়াশার, বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতির কর্মসূচিতে কাটছাঁট - West Bengal News 24

কুয়াশার কারনে দৃশ্যমানতা কম থাকায় কাটছাঁট বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার (JP Nadda) বঙ্গ সফরের কর্মসূচী। আগামী ১৯ শে জানুয়ারী নাড্ডার বঙ্গ সফরের কথা থাকলেও তাতে বাধ সাধল কুয়াশা। ঠিক হয়েছিল আগামী ১৯ জানুয়ারি মোট দু’টি সভা করবেন নাড্ডা। একটি হুগলির আরামবাগে। অন্যটি নদিয়ার কৃষ্ণনগরে (Krishnanagar)। কিন্তু আবহাওয়ার কারণে সেই কর্মসূচি ছোট হয়ে গেল।

বিজেপি সূত্রে খবর, শুধুমাত্র কৃষ্ণনগরে সভা করবেন তিনি। ১৯ জানুয়ারি দিল্লি থেকে এসে আবার ওই দিনই ফিরে যাওয়ার কথা নাড্ডার (JP Nadda)। সে ক্ষেত্রে কুয়াশা বাধা হতে পারে বলে মনে করেছেন বিজেপি নেতৃত্ব। তাই সফরের সময় কাটছাঁট করে একটি সভা করবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি। সেটি তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের (Mouha Maitra) এলাকায়।

আরামবাগ এবং কৃষ্ণনগরের মধ্যে কেন দ্বিতীয়টি বাছলেন নাড্ডা ? নেপথ্যে রয়েছে ভোটের ফলাফল। তৃণমূলের সাথে বিজেপির জোট থাকাকালীন কৃষ্ণনগর আসনে ১৯৯৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী সত্যব্রত মুখোপাধ্যায় (Satyabrata Mukherjee) জয়ী হয়েছিলেন। পরে ২০১৯ সালে লোকসভা ভোটে বিজেপি প্রার্থী কল্যাণ চৌবে (Kalyan Choube) তৃণমূলের মহুয়া মৈত্রের কাছে পরাজিত হন ৬৩ হাজার ২১৮ ভোটে।

তেহট্ট, কৃষ্ণনগর উত্তর, কৃষ্ণনগর দক্ষিণ আসনে এগিয়ে ছিল বিজেপি (BJP)। আবার ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের (Asaembly Election) ফল বলছে, কৃষ্ণনগর লোকসভার অন্তর্গত সাতটি আসনের মধ্যে কৃষ্ণনগর উত্তরে বড় ব্যবধানে জয় ছাড়া বাকি ছ’টিতে হেরেছে। আরামবাগে (Arambag) বিজেপির লড়াই অপেক্ষাকৃত সহজ বলে মনে করছেন বিজেপি নেতারা।

যদিও ২০১৯ সালেও এই আসনে জেতা এক প্রকার নিশ্চিত মনে করেও হারতে হয়েছে বিজেপিকে (BJP)। তবে হারের ব্যবধান ছিল স্বল্প। তৃণমূলের অপরূপা পোদ্দারের (Aporoopa Poddar) কাছে বিজেপির তপন কুমার রায় (Tapan Kumar Roy) হেরে যান মাত্র ১,১৪২ ভোটে। তাই প্রথম থেকেই কৃষ্ণনগরের পরে আরামবাগকে রেখেছিলেন নাড্ডা।

আরও পড়ুন ::

Back to top button