সম্পর্ক

প্রেমিকার আস্থা পেতে এই ৭ কাজ করুন

প্রেমিকার আস্থা পেতে এই ৭ কাজ করুন

সম্পর্ক নিয়ে উদ্বিগ্ন নয় এমন নারী খুব কমই খুঁজে পাবেন। বেশিরভাগ প্রেমিকাই তার প্রেমিককে হারিয়ে ফেলার ভয়ে অস্থির হয়ে থাকে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে পুরুষেরা বুঝতেও পারেন না যে কোন কাজগুলোর কারণে প্রেমিকা আস্থা হারিয়ে ফেলতে পারে, অনিরাপদ বোধ করতে পারে। সম্পর্কে আস্থা থাকলে সেটি আরও বেশি সুন্দর হয়ে ওঠে। আস্থাহীন সম্পর্ক বেশি দূর এগোতে পারে না। প্রেমিকার আস্থা পেতে চাইলে আপনাকে করতে হবে এই ৭ কাজ-

যোগাযোগ
প্রেমের সম্পর্কের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিকগুলোর একটি হলো যোগাযোগ ধরে রাখা। আপনার প্রেমিকা যেন সব বিষয়ে আপনার সঙ্গে মন খুলে কথা বলতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে তা নিশ্চিত করুন। তার কথা মন দিয়ে শুনুন, মমতা ও ভালোবাসার সঙ্গে প্রত্যুত্তর করুন। তাকে বুঝতে চেষ্টা করুন।

কথা ও কাজের মিল
কথা এবং কাজের মিল রাখুন। যদি তাকে কোনো কথা দিয়ে থাকেন তবে তা সত্যি করার চেষ্টা করুন। এতে সে খুব সহজেই আপনার ওপর আস্থা রাখতে পারবে। আর কেবল মুখেই বলে গেলে এবং সে অনুযায়ী কোনো কাজ না করলে আপনি কখনোই তার আস্থা জিততে পারবেন না।

আরও পড়ুন :: যে ৫ কারণে কম বয়সী পুরুষ পছন্দ নারীদের

বিশ্বাস
সম্পর্কে বিশ্বাস হলো সবচেয়ে বড় স্তম্ভ। তাই বিশ্বাস তৈরি করুন। সৎ এবং স্বচ্ছ হোন। প্রতীজ্ঞা করলে তা ধরে রাখতে শিখুন। সেইসঙ্গে তার বিশ্বাস নষ্ট হতে পারে এমন কোনো কাজ করা থেকে বিরত থাকুন।

মায়া
সব সময় প্রেমিকার প্রতি আপনার মায়া কিংবা স্নেহ প্রকাশ করুন। আপনার ছোট ছোট অনুভূতির প্রকাশ তাকে আরও বেশি নিরাপদ বোধ করাবে। মনে রাখবেন, মানুষ শান্তি ও স্বস্তির জন্য ভালোবাসায় জড়ায়। তাই বাড়তি কোনো ঝামেলা ডেকে আনবেন না। তার সঙ্গে খারাপ আচরণ করবেন না।

শ্রদ্ধা
প্রেমিকার প্রতি সম্মান ধরে রাখুন। তার প্রতি সব ধরনের অবজ্ঞা বা অসম্মানজনক আচরণ করা থেকে বিরত থাকবেন। তার মতামত এবং অনুভূতির মূল্যায়ন করতে শিখুন। মনে রাখবেন, নারীর কাছে সম্মান মানেই ভালোবাসা।

আরও পড়ুন :: প্রেমিকা দেখা করতে না চাইলে কী করবেন?

সঠিকভাবে বুঝতে পারা
প্রেমিকার দৃষ্টিভঙ্গী ও তার অনুভূতির প্রতি সহানুভূতিশীল হোন। যদি সে কোনো কঠিন সময় পার করে, তার পাশে থাকার সর্বোচ্চ চেষ্টা করুন। আপনার এই প্রচেষ্টাই তাকে আপনার প্রতি আস্থা খুঁজে পেতে সাহায্য করবে।

কোয়ালিটি টাইম
প্রেমিকার জন্য সময় রাখুন। একসঙ্গে সময় কাটানো, গল্প করা, ঘুরে বেড়ানো ইত্যাদি কাজ আপনাদের মধ্যে বন্ধন আরও দৃঢ় করবে। কোনো কোনো সময় তার পাশে শুধু চুপ করে বসে থাকুন। এই পাশে থাকাটুকুও তার জন্য আস্থার জায়গা হয়ে উঠবে।

আরও পড়ুন ::

Back to top button