রাজ্য

ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের ব্যাপারে কেন্দ্র দায়িত্বহীন হতে পারে, আমরা নই : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের ব্যাপারে কেন্দ্র দায়িত্বহীন হতে পারে, আমরা নই : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় - West Bengal News 24

ইউক্রেন ফেরত পড়ুয়াদের পাশে মুখ্যমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার বিকেলে নবান্ন থেকে সাংবাদিক বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইউক্রেন ফেরত বাংলার পড়ুয়াদের সঙ্গে আগেই বৈঠক করেছিলেন তিনি।

বঙ্গের একাধিক সরকারি ও বেসরকারি কলেজে পড়ুয়াদের পঠনপাঠনের ব্যবস্থা করবেন বলে জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই নিয়েই বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠক করলেন মুখ্যমন্ত্রী।

বৈঠকে মমতা জানান, পড়ুয়ারা নিজেদের পড়াশোনা সেই দেশে ফেলে ফিরে এসেছেন। কারণ ইউক্রেনে এখন যুদ্ধ চলছে। এদিকে কেন্দ্রীয় সরকার এই সকল পড়ুয়াদের জন্য কিছুই করবে না বলে জানিয়েছে, এমনটাই দাবি মমতার।

কেন্দ্র দায়িত্ব না নিলে রাজ্য দায়িত্ব নেবে, বলেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি জানান, যে ৪২২ জন পড়ুয়াকে রাজ্য ফেরত এনেছে, তাদের সঙ্গে গত মাসেই একটি বৈঠক করেন মমতা।

মমতা বলেন, ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের যে ৬ জন ছাত্র ইউক্রেন থেকে বঙ্গে ফিরেছে, তাঁদের পড়াশোনার জন্য একটি বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে ২ জন সেখানে জয়েন করেছে। আর বাকি চার জন পড়ুয়ার ভর্তির পক্রিয়া চলছে।

ডেন্টাল পড়ুয়াদের জন্য কলকাতার ডেল্টাল কলেজে ইন্টার্নশিপের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ইউক্রেন থেকে তিন জন কর্মী দেশে ফিরেছে। তাদের ডিএম অফিসে ক্যাজুয়াল ওয়ার্কার হিসাবে নিয়োগ করা হয়েছে। তাদের জন্য লোনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ইউক্রেন ফেরত ৪১২ জন মেডিক্যাল পড়ুয়ার পড়াশোনার জন্য ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। এর মধ্যে ষষ্ঠ বর্ষের পড়ুয়াদের সংখ্যা ২৩। তাঁদের সরকারি মেডিক্যাল কলেজে ইন্টার্নশিপের সুযোগ দেওয়া হবে। চতুর্থ এবং পঞ্চম বর্ষের মেডিক্যাল পড়ুয়ার সংখ্যা যথাক্রমে ৪৩ ও ৯২।

মোট ১৩৫ জন। তাদের জেলার বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজে ইন্টার্নশিপের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তৃতীয় ও দ্বিতীয় বর্ষের পড়ুয়াদের সংখ্যা যথাক্রমে ৯৩, ৭৯। মোট ১৭২ জন। তাঁদের প্রাকটিসের জন্য বিভিন্ন সরকারি মেডিক্যাল কলেজে সুযোগ দেওয়া হবে।

প্রথম বর্ষের মেডিক্যাল ছাত্রছাত্রীদের জন্য বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই বেসরকারি কলেজগুলোকে ইউক্রেনের মেডিক্যাল পড়ুয়াদের ভর্তির সময় ছাড় দেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

 

 

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button